সদর প্রতিনিধি->>

ফেনীতে ১০ কেজি গাঁজা ও ১০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর মহিপালস্থ সুজন রেস্তোরা এন্ড বিরিয়ানি হাউজের সামনে চেকপোষ্ট স্থাপন করে গাড়ী তল্লাশীকালে ১০ কেজি গাঁজা ও ১০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক বিক্রেতা মো. মোরশেদ হোসেন নাঈম (২৭) ও মো. নাছিরকে (৩২) আটক করে র‌্যাব।

আটককৃত মো. মোরশেদ হোসেন নাঈম নোয়াখালী জেলার সুধারাম থানার এজবালিয়া এলাকার মো. মোখলেছুর রহমানের ছেলে ও মো. নাছির নোয়খালী জেলার বেগমগঞ্জ থানার রফিকপুর এলাকার আবদুল হালিমের ছেলে। তারা উভয়ে চট্টগ্রাম জেলায় বসবাস করতো।

র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক, উপ-পরিচালক, স্কোয়াড্রন লীডার আব্দুল্লাহ আল জাবের ইমরান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর মহিপালস্থ সুজন রেস্তোরা এন্ড বিরিয়ানি হাউজের সামনে চেকপোষ্ট স্থাপন করে গাড়ী তল্লাশী কারে। এসময় র‌্যাবের চেকপোস্টের দিকে আসা একটি প্রাইভেটকারের (চট্ট মেট্রো-গ-১১-২৭১২) গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা প্রাইভেটকারটিকে থামানোর সংকেত দিলে প্রাইভেটকারটি না থামিয়ে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। র‌্যাব সদস্যরা ধাওয়া করে গাড়ীসহ মাদক বিক্রেতা মো. মোরশেদ হোসেন নাঈম ও মো. নাছিরকে আটক করে। এসময় গাড়ি তল্লাশি করে ১০ কেজি গাঁজা ও ১০০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্যে ২ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে আসামীরা জানায়, তারা দীর্ঘদিন ধরে সুকৌশলে মাদক দ্রব্য (গাঁজা ও ফেন্সিডিল) কুমিল্লার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে সংগ্রহ করে ফেনী ও চট্টগ্রামসহ আশপাশের জেলার বিভিন্ন মাদক বিক্রেতা ও মাদক সেবীদের কাছে বিক্রয় করে আসছিলো।

র‌্যাব আরো জানায়, আটককৃত ব্যক্তিদ্বয় ও উদ্ধারকৃত মাদক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ফেনী মডেল থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Sharing is caring!