শহর প্রতিনিধি->>

বাউল সাধক ফকির লালন শাহ এর ১৩১ তম প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র। গত ২২ অক্টোবর শুক্রবার বিকেলে ফেনীর নবীনচন্দ্র সেন মিলনায়তনে চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ফেনী জেলা শাখার উদ্যোগে আলোচনা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুমিল্লার নওয়াব ফয়েজুন্নেসা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ বাবুল চন্দ্র শীল।

চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ফেনী জেলা শাখার ইনচার্জ কমরেড অর্জুন দাসের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় স্মৃতিচারণমুলক বক্তব্য রাখেন কবি, গবেষক ও দ্যা ডেইলি স্টারের সাহিত্য সম্পাদক ইমরান মাহফুজ, ছাগলাইয়া মৌলভী শামছুল করিম কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক কবি শিরিন রহমান, কবি, লেখক ও আইনজীবী জিয়া উদ্দিন বুলবুল, বাসদ ফেনী জেলা শাখার সদস্য সচিব কমরেড মালেক মনসুর ও কবি, গবেষক শাবিহ মাহমুদ প্রমুখ।

কবি, সংগঠক ও ব্যাংকার আর কে শামীম পাটোয়ারীর সঞ্চালনায় লালন ফকিরের জীবনী পাঠ করেন চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ফেনী জেলা শাখার সদস্য দাউদ উল ইসলাম।

কুমিল্লার নওয়াব ফয়েজুন্নেসা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ বাবুল চন্দ্র শীল বক্তব্যে বলেন, “আমি দীর্ঘ ঊনত্রিশ বছর ধরে ফেনীতে বাস করছি, আজ পর্যন্ত দেখিনি ফেনীতে লালন ফকিরের স্মরণে কেউ কোন অনুষ্ঠান করেছে। এমন অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় তিনি আয়োজকদের সাধুবাদ জানান।’’

বক্তারা একটি অসাম্প্রদায়িক সাম্য সমাজ বিনির্মাণে পরিপূরক সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের উপর গুরুত্বারোপ করেন। লালনের মানবতাবাদী চিন্তা সর্বত্র ছড়িয়ে দেয়া এবং নিজেদের জীবনে অনুশীলনের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

আলোচনা সভা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে লালনের গান পরিবেশন করেন প্রফেসর বাবুল চন্দ্র শীল, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ছাগলনাইয়া উপজেলা শাখার সঙ্গীত প্রশিক্ষক জাফর আহমেদ, মেঘলা ও সবুজ, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র দাগনভূঞার শিল্পী সুনীল দেবনাথ, পুষ্পিতা দাস এবং মানিক দেবনাথ। কবিতা আবৃত্তি করেন বকুল আকতার দরিয়া এবং তাথৈ।

অনুষ্ঠানে কবি, সাংবাদিক, সাহিত্যিকসহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Sharing is caring!