ছাগলনাইয়া প্রতিনিধি->>

ছাগলনাইয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ ও ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুন্সি নুর হোসেনকে (৪৫) হত্যা চেষ্টার অভিযোগে থানায় হত্যা চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে তার বড় ভাই মুন্সি আবুল হোসেন বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ জানায়, গত ১২ জুন ছাগলনাইয়া পৌরসভা ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুন্সি নূর হোসেন মোকামিয়া রাস্তার মাথায় মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় গুরুত্বর আহত হয়। দূর্ঘটনায় মাথায় ও মুখে গুরুত্বর জখম হয়। দূর্ঘটনায় বিষয়ে সন্দেহ সৃষ্টি হওয়ায় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুন্সি নূর হোসেনের বড় ভাই মুন্সি আবুল হোসেন বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে দন্ডবিধির ৩২৩/৩০৭/৩২৫/৩৪ ধারায় মামলা দায়ের করেন। হত্যার উদ্দেশ্যে মুন্সি নুর হোসেনের উপর হামলা করা হয়েছে মর্মে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, মুন্সী নুর হোসেনের বড় ভাই মুন্সি আবুল হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি পুলিশ তদন্ত করেছেন। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্তদের আইনের আওয়তায় আনা হবে।

প্রসঙ্গত, ছাগলনাইয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুন্সি নুর হোসেন ১২ জুন শনিবার রাতে মোটর সাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে মোকামিয়া নামক এলাকায় পৌছলে তামিম (২০) নামের এক পথচারীকে চাপা দিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার উপর পড়ে গুরুতর আহত হন। সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ছাগলনাইয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করার পরামর্শ দেয়ার পর তাকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্রগ্রাম একটি প্রাইভেট হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থার আরও অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য পরবর্তীতে ঢাকায় একটি হাসপাতালে নেয়া হয়।

Sharing is caring!