দাগনভূঞা প্রতিনিধি->>

ফেনীর দাগনভূঞায় মশার কয়েলের আগুনে দগ্ধ হয়ে আবুল হাসেম মানিক (২০) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাতে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের স্বজনরা জানান, রোববার ভোরে মশার কয়েলের আগুন থেকে বিছানায় দগ্ধ হয় মানিক। তাকে উদ্ধার করে সকালে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে তার অবনতি হলে ঢাকায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হয়। ঢাকা নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

আবুল হাসেম মানিক দাগনভূঞায় উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের গণিপুর গ্রামের মনুভূঞা বাড়ির আবুল কাশেমের ছেলে। তিনি রাজাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. রিপন নাথ বলেন, মানিকের শরীরের ৮০ ভাগের বেশি দগ্ধ হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছিলো।

সোমবার জানাজা শেষে আবুল হাসেম মানিকের মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

Sharing is caring!