নিজস্ব প্রতিনিধি->>

করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি পাওয়ায় সোনাগাজী পৌরসভা নির্বাচন ফের স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার সোনাগাজী পৌরসভাসহ ৯টি পৌরসভার নির্বাচন ফের স্থগিত করেন। এর আগে আগামী ২১ জুন এ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ করা হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেলো ইসি। তার আগে গত ২৬ মে বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ২১ জুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছিলেন ইসি সচিব।

ইসি সূত্র জানায়, করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় খুলনা বিভাগের ১২৬ ইউনিয়নসহ দেশের আরও ৩৭টি ইউনিয়ন পরিষদের ভোট স্থগিত করছে নির্বাচন কমিশন। একইসঙ্গে স্থগিত করা হয়েছে ৯টি পৌরসভার ভোটও। এছাড়া সিলেট-৩, ঢাকা-১৪ ও কুমিল্লা-৫ সংসদীয় এই তিন শূন্য আসনের উপ-নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বিকেল ৩টায় নির্বাচনের প্রস্তুতি ও আইইডিসিআর এর করোনা সংক্রান্ত পত্র পর্যালোচনার পর সংবাদ সম্মেলনে এসব সিদ্ধান্ত জানায় নির্বাচন কমিশন।

এর আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় প্রথম ধাপে দেশের ১৯ জেলার ৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত করেছিল নির্বাচন কমিশন। গত ১১ এপ্রিল এই নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। এছাড়া ষষ্ঠ ধাপে ১১ পৌরসভার নির্বাচনও ওইদিন হওয়ার কথা ছিল। ১ এপ্রিল নির্বাচন ভবনে কমিশনের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছিল।

এর আগে গত ৩ মার্চ দেশের ১১টি পৌরসভা ও ৩৭১টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে ইসি। ১১টি পৌরসভার মধ্যে রয়েছে ফেনীর সোনাগাজী পৌরসভা।

বিএনপিবিহীন নির্বাচনে প্রায় একতরফা জয়ের পথে বর্তমান মেয়র উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকন, তবে দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থীসহ একাধিক প্রার্থী মাঠে থাকায় সরগরম ছিলো ভোটের মাঠ।

সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাজেদুল ইসলাম পলাশ জানান, সোনাগাজী পৌর এলাকাসহ উপজেলা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হলে ভোটের জন্য আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে।

Sharing is caring!