শহর প্রতিনিধি->>

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৪০ তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে ফেনীর নেতা-কর্মীরা কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে ভার্চ্যুয়াল সভায় মিলিত হয়। মঙ্গলবার সকালে সাবেক সংসদ ভিপি জয়নালের ফলেশ্বস্থ বাড়ির সামনে, শহরের ইসলামপুর রোডস্থ জেলা বিএনপির কার্যালয়ে, তাকিয়া রোডস্থ ফজলুর রহমান বকুলের বাসভবনে ও ছয়টি উপজেলায় পৃথকভাবে নেতা-কর্মীরা কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে ভার্চ্যুয়াল সভায় মিলিত হয়।

জেলা বিএনপির আহবায়ক শেখ ফরিদ বাহার সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়াল সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)র স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। প্রধান বক্তা ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্যাহ ভুলু। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, উপদেষ্টা জয়নাল আবেদীন ফারুক, অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন ভিপি, সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগ) মাহবুবুর রহমান শামীম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগ) জালাল উদ্দিন মজুমদার ও হারুনুর রশিদ, সহ-প্রশিক্ষণ সম্পাদক রেহানা আক্তার রানু, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট শাহানা আক্তার সানু ও মশিউর রহমান বিপ্লব, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু।

জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আলাল উদ্দিন আলালের পরিচালনায় ভার্চ্যুয়াল আলোচনায় সংযুক্ত হয়ে অংশ নেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপক এম এ খালেক, গাজী হাবিব উল্যাহ মানিক, এয়াকুব নবী ও আলাউদ্দিন গঠন, সদর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ফজলুর রহমান বকুল, ফেনী পৌর বিএনপির সদস্য সচিব মেজবাহ উদ্দিন ভূঞা, দাগনভূঞা উপজেলা বিএনপির সভাপতি আকবর হোসেন, ছাগলনাইয়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক নুর আহমদ মজুমদার, পরশুরাম উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আবদুল হালিম, সোনাগাজী উপজেলা বিএনপির সভাপতি গিয়াস উদ্দিন, ফুলগাজী উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হোসেন, জেলা যুবদল সভাপতি জাকির হোসেন জসিম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল সাধারণ সম্পাদক এস এম কায়সার এলিন, জেলা কৃষকদলের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, জেলা শ্রমিকদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হুমায়ুন কবির চৌধুরী, জেলা মহিলা দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস মিতা, জেলা ছাত্রদল সভাপতি সালাহ উদ্দিন মামুন ও সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ আলম মিলন প্রমুখ।

সভায় প্রয়াত রাষ্ট্রপতি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কর্মময়ী জীবন ও বিএনপির কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এসময় বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল, মহিলা দল ও ছাত্রদলের জেলা, উপজেলা, পৌরসভাসহ বিভিন্ন ইউনিটের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

Sharing is caring!