শহর প্রতিনিধি->>

ফেনী শহরতলীর দেওয়ানগঞ্জে গার্মেন্টস পণ্য চুরির সময় পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন আজাদসহ ৪ জনকে আটকের ঘটনায় দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও অবৈধ কর্মকান্ডে জড়িত থাকার কারনে আনোয়ার হোসেন আজাদ দলীয় সকল কর্মকান্ড ও এবং দলীয় পদবী থেকে অব্যাহতি প্রেরণ করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফেনী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী।

এর আগে র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহফুজুর রহমান জানান, রোববার ঢাকার গাজীপুরের কালিকাপুর থেকে লিবার্টি গ্রুপের গার্মেন্টস পণ্য রপ্তানির জন্য চট্টগ্রাম বন্দরের উদ্দেশে কাভার্ডভ্যানটি রওনা হয়। চট্টগ্রাম বন্দরে যাওয়ার পথে ফেনীর দেওয়ানগঞ্জে সোমবার রাত ১১টার দিকে ফেনী পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পদক আনোয়ার হোসেন আজাদ গুদামে গাড়িটি নিয়ে আসেন। সেখানে কভার্ডভ্যান থেকে সব মালামাল সরিয়ে ফেলে সেটি রাস্তার পাশে ফেলে রাখেন তারা।

পরে স্থানীয় লোকজন কর্ভাডভ্যানটি থেকে মালামাল নামিয়ে ফেলার বিষয়টি দেখতে পেয়ে র‌্যাবকে খবর দেয়। পরবর্তীতে রাত ১২টার দিকে ওই গুদামে অভিযান চালিয়ে হাতেনাতে ফেনী পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন আজাদ, গুদামের মালিক উত্তর চাড়িপুর মুক্তার বাড়ি মো. শাহজাহানের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম স্বপন (৪২), কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি থানার মো. আবুল কাশেমের ছেলে কাভার্ডভ্যান চালক মো. হানিফ (২৮), চট্টগ্রাম আনেয়ারা থানার এম এ কাদেরের ছেলে কাভার্ডভ্যান হেলপার মো. মহসিন (১৮) কে আটক করে র‌্যাব। এ সময় ১ কোটি ৭ লাখ ৫২ হাজার টাকা মূল্যের গার্মেন্টস পণ্য উদ্ধার ও একটি কাভার্ডভ্যান জব্দ করা হয়।

র‌্যাব কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান জানান, গাড়িতে মোট ৩৩৬টি কার্টনে গার্মেন্টস পণ্য ছিল। প্রতিটিতে ৩২ পিস করে সোয়েটার ছিল। প্রতি কার্টন থেকে ৮ পিস করে রেখে দিয়েছিলেন তারা।

তিনি আরও জানান, এই চক্র বেশ কয়েক মাস ধরে গার্মেন্টস সামগ্রী চুরির কাজ করে আসছিল। এতে বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে জার্মান প্রতিষ্ঠানের চুক্তি বাতিলের পাশাপাশি দেশের সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে। আটকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে ফেনী মডেল থানায় হস্তান্তর করা হবে।

Sharing is caring!