দাগনভূঞা প্রতিনিধি->>

দাগনভূঞা উপজেলায় ৫টি ইটভাটাকে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড (জরিমানা) করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নাহিদা আক্তার তানিয়া এ জরিমানা আদায় করেন।

আদালত সূত্র জানায়, ফেনীর ইটভাটাগুলোতে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা ও বারবার তাগাদা দেয়ার পরও জিগজাগ (আধুনিক প্রযুক্তি) পদ্ধতির যথাযথ ব্যবহার হচ্ছেনা। তাছাড়াও কিছু ইটভাটা ছাড়পত্র নবায়নের আবেদন করছে না। এ অবস্থায় বিকালে দাগনভূঞা উপজেলায় স্থাপিত কয়েকটি ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করে। জিগজাগ প্রযুক্তির যথাযথ ব্যবহার না করা ও ছাড়পত্র নবায়ন না করায় মেসাস ন্যাশনাল ব্রিকসের ১, ২ ও ৬ নং ইউনিট এবং মেসার্স ব্রাদার্স ব্রিকসের ১ ও ২ নং ইউনিটকে ৫০ হাজার টাকা করে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড (জরিমানা) করা হয়েছে। এছাড়াও কৃষি জমির মাটির কাটার দায়ে দাগনভূঞা পৌরসভার আলাইয়াপুর গ্রামের এক ব্রিকসকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক ফাইজুল কবির জানান, ইটভাটা গুলোতে জিগজাগ প্রযুক্তি চালু আছে। তবে প্রযুক্তির আন্ডারগ্রাউন্ড ও প্যানেলে পানি কম থাকা বা পানিশূন্য থাকায় ভ্রাম্যমান আদালত জরিমানা করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা আক্তার তানিয়া জানান, ইটভাটায় আইনভঙ্গ করলে অভিযান চালানো হবে। এ ক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা।

অভিযানে পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও প্রশাসনের উদ্ধতন কর্মকর্তা,আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Sharing is caring!