আদালত প্রতিবেদক->>

ফুলগাজীর মাদক মামলায় নবম শ্রেণির ৩ ছাত্রকে সাজা না দিয়ে প্রবেশনের সুবিধা দিয়েছেন আদালত। সোমবার ফেনীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো. জাকির হোসেনের আদালতে প্রবেশনের এ রায় ঘোষণা করেন। প্রবেশনের সুবিধা পাওয়া আসামীরা হলেন-ফুলগাজী উপজেলার পূর্ব বসন্তপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন জাহিদ, সোহেল ইমাম মামুন ওরফে রাজু ও ইমরান হোসেন সাকিব। তারা সবাই বসন্তপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র।

আদালত সূত্র জানায়, চলতি বছরের ২৭ জুলাই ফুলগাজী উপজেলার পূর্ব বসন্তপুর গ্রামে থেকে ৮ গ্রাম গাঁজা ও ২ পিস ইয়াবাসহ নবম শ্রেণির ছাত্র দেলোয়ার হোসেন জাহিদ, সোহেল ইমাম মামুন ওরফে রাজু ও ইমরান হোসেন সাকিবকে আটক করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এদের মধ্যে দেলোয়ার হোসেন জাহিদের প্যান্টের পকেট থেকে ৮ গ্রাম গাঁজা, সোহেল ইমাম মামুন ওরফে রাজুর পকেট ও ইমরান হোসেন সাকিবের পকেট থেকে ২ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরে বিজিবি বিাদি হয়ে ফুলগাজী থানায় মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলায় ফুলগাজী মডেল থানা পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। চলতি মাসের ৭ ডিসেম্বর অভিযোগ গঠনকালে তিন ছাত্র নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে অনুতপ্ত হয়। আদালত আসামীদের সামাজিকতা, ছাত্রজীবন ও কর্মজীবনের কথা বিবেচনা করে তাদেরকে সাজা না দিয়ে ৯ শর্তে প্রবেশনের সুযোগ প্রদান করেন।

প্রবেশনের শর্তগুলো মাঝে মাদক গ্রহণ ও বিক্রয় না করে এর বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখা, পড়াশোনা করে নিজেদেরকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার কথা রয়েছে। এছাড়াও নির্ধারিত বই পড়া, সিনেমা দেখা এবং গাছ রোপনের শর্ত রয়েছে।

আদালতের এই রায়ে তিন শিক্ষার্থীর স্বজনরা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

Sharing is caring!