সদর প্রতিনিধি->>

স্বাস্থ্যবিধি বাস্তবায়নে মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন ও মন্দিরের পুরোহিতদের সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখতে হবে। কারণ সাধারণ মানুষের কাছে তাদের প্রভাব বেশি। তারা সমাজের মানুষকে মাস্ক পরা ও সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিলে সেটি তাড়াতাড়ি বাস্তবায়ন হবে। এতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যে লক্ষ্য সেটি আমরা সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে পারব বলে মন্তব্য করেছেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী। শনিবার সকালে ফেনী সদরের ফাজিলপুরে মসজিদ-মন্দিরে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সচিব এমন আহ্বান জানান।

ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুল হক রিপনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক ড. মোহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরীন সুলতানা, ফুলগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম। ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন গঠনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ইমাম নাজমুল হক ও পুরোহিত মনিক দাস।

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণের বিস্তার রোধে ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে আয়োজিত স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সচিব মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বাসা থেকে বের হবার সময় যদি মাস্ক পড়ে না বের হই, তাহলে আমার কারণে আমার পরিবারের ক্ষতি হতে পারে। করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে বর্তমান সরকারের ‘নো মার্কস, নো এন্ট্রি- নো মার্কস, নো সার্ভিস’ এই বার্তাটি দ্রুত সবখানে ছড়িয়ে দিতে হবে। আমাদের সঠিকভাবে মাস্ক পড়ার নিয়ম জানতে হবে। এসময় তিনি মাস্ক পরা ও খোলার নিয়মগুলো উপস্থিত সকলকে দেখান। স্যানিটাইজার ব্যবহারের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে জনসাধারণের মাঝে বিতরণের জন্য মসজিদ-মন্দিরে ৪০ হাজার মাস্ক প্রদান করা হয়। একই অনুষ্ঠানে দুঃস্থ ও অসহায় ব্যক্তিকে সাবলম্বী করে তুলতে ২টি সেলাই মেশিন ও এক প্রতিবন্ধীকে ব্যক্তিকে হুইল চেয়ার প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে ইউপি সদস্য, মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন, মন্দিরের পুরোহিত ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

Sharing is caring!