ফুলগাজী প্রতিনিধি->>

ফুলগাজীতে বন্যা কবলিত এলাকার ৫০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান। রোববার বিকালে ফুলগাজীর দৌলতপুরে বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন শেষে বন্যা কবলিত এলাকার ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের মাঝে শুকনো খাবার তুলে দেন।

খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল আলিম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম, সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম এসময় উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম জানান, পানি বন্দী পরিবারগুলোর জন্য শুকনো খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের তালিকা করা হয়েছে। পানি নেমে গেলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয় করা হবে।

জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান জানান, অবিরাম বৃষ্টি ও পানির তোড়ে বাঁধ নরম হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সময় স্বল্পতার কারণে বাঁধ নির্মাণে সমস্যা হয়েছে। পানি হ্রাস পেলে আগামী ডিসেম্বরে মধ্যে টেকসই বাঁধ নির্মাণ করা হবে আশ্বাস প্রদান করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ভারত থেকে নেমে আসা উজানের পানির প্রবল চাপে শনিবার রাত ১২টার দিকে ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড উত্তর দৌলতপুর এলাকার মোহাম্মদ উল্যাহর বাড়ির পাশে মুহুরী নদীর বাঁধে ভাঙ্গন দেখা দেয়। বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ওই অংশে ৫০-৬০ ফুট ভাঙ্গন সৃষ্টি হয়। একইসাথে উত্তর দৌলতপুরে কহুয়া নদীর বাঁধের ভেঙে যায়। ফলে ভাঙ্গন অংশ দিয়ে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানি ঢুকে দৌলতপুর, উত্তর দৌলতপুর ও দক্ষিণ দৌলতপুর গ্রামসহ অন্তত ৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। ফুলগাজী বাজারের পশ্চিম অংশে শ্রীপুর এলাকায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়ে ফুলগাজী উপজেলা সদরের মূল সড়ক তলিয়ে যায়।

Sharing is caring!