ফুলগাজী প্রতিনিধি->>

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সংসদীয় ফেনী-১ আসনে মতবিনিময় সভা করেছেন নৌকার প্রার্থী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক প্রটোকল অফিসার আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম।

বৃহস্পতিবার রাতে ফুলগাজী উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের খালেদা জিয়ার বাড়ির আঙ্গিনায় আয়োজিত মতবিনিময় সভায় গ্রামবাসী হাত তুলে নৌকা প্রতীককে বিপুল ভোটে জয়ী করার বিষয়ে আশ্বস্ত করেন।

সভায় আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম বলেন, এ গ্রাম থেকে বেগম খালেদা জিয়া পাঁচবার সংসদ সদস্য হয়েছেন। এ গ্রামের বেশ কয়েকজন একটি সভা করতে চেয়েছিল। সেজন্য এখানে এসেছি। তারা আমাকে কাছে পায়, উনাকে (খালেদা জিয়া) কাছে পায়নি। এজন্য আমার প্রতি আগ্রহ বেশি। সেই সুবাদে এ এলাকায় উন্নয়ন করব এমন কথা বলাও আমার বেয়াদবি হবে।

তিনি বলেন, এতোদিন রাস্তাঘাট উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু এবার আমি মানবসম্পদ উন্নয়নকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি। এটি বহু আগেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চিন্তা করে রেখেছেন। যেটি আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারেও দুই নম্বরে রয়েছে।

নাসিম চৌধুরী আরও বলেন, বাবার কবর জিয়ারতের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে আজকে এ এলাকায় মতবিনিময় সভার মাধ্যমে শেষ হচ্ছে। বক্তব্যের পর প্রচারণার সমাপ্তিতে দোয়া মোনাজাত করেন অতিথিরা। 

ফুলগাজী মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সালাহ উদ্দিন আহমেদ মজুমদারের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বেগম খালেদা জিয়ার ভাতিজা সালাহউদ্দিন আহমেদ মজুমদার, এটিএম ইয়াছিন সাদেক বিপ্লব মজুমদার, মামুনুর রশিদ সাহেদ প্রমুখ।

এর আগে বিকেলে ছাগলনাইয়া বাজারের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন নৌকার প্রার্থী আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম। সভায় উপস্থিত থেকে নৌকা প্রতীকের ভোট চেয়ে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। 

প্রসঙ্গত, স্বাধীনতার পর ১৯৭৩ সালে সর্বশেষ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে ফেনী-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন প্রথিতযশা সাংবাদিক প্রয়াত এবিএম মূসা। এরপর এ আসন থেকে আওয়ামী লীগ আর কখনও জয়ী হতে পারেনি। ১৯৯১ সাল থেকে ফেনী-১ আসনে পৈত্রিক ভিটা সূত্রে ৫ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। বিগত দুটি নির্বাচনে মহাজোটের প্রার্থী জাসদ (ইনু) কেন্দ্রয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার নৌকা প্রতীয় নিয়ে ভোটে বিজয়ী হয়।