নিজস্ব প্রতিবেদক->>

ফেনীতে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিনে আওয়ামী লীগ নেতা মো. আবুল বাশার, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বর্তমান সাংসদ শিরীন আখতার সহ পাঁচ প্রার্থী তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন। জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তারের নিকট তারা প্রত্যাহার পত্র জমা দেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ফেনী-১ আসনে জাকের পার্টির প্রার্থী রহিম উল্যাহ ভূঁইয়া, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, ফেনী-২ আসনে জাকের পার্টির নজরুল ইসলাম, ফেনী-৩ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. আবুল বাশার, জাকের পার্টির প্রার্থী আবুল হোসেন রিটার্নিং কর্মকর্তার নিকট প্রার্থিতা প্রত্যাহারের পত্র জমা দেন।

প্রত্যাহারের পর ২৬৫ ফেনী-১ আসনে বৈধ ৬ প্রার্থী হলেন- আবুল হোসেন চৌধুরী স্বতন্ত্র, আলাউদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, কাজী মো. নুরুল আলম বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, মাহবুব মোরশেদ মজুমদার বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট, মো. শাহজাহান (শাজু) তৃণমূল বিএনপি,শাহরিয়ার ইকবাল (জাতীয় পার্টি)।

প্রত্যাহারের পর ২৬৬ ফেনী-২ আসনে বৈধ ৮ প্রার্থী হলেন- আ.ই.ম আমজাদ হোসেন ভূঁঞা তৃণমূল বিএনপি, এএসএম আনোয়ারুল করিম স্বতন্ত্র, খোন্দকার নজরুল ইসলাম জাতীয় পার্টি, নিজাম উদ্দিন হাজারী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, মাওলানা নূরুল ইসলাম বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, মোহাম্মদ আবুল হোসেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন, মোহাম্মদ নুরুল আমিন ভূঁঞা বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট, মোহাম্মদ হোসেন বাংলাদেশ কংগ্রেস।

প্রত্যাহারের পর ২৬৭ ফেনী-৩ আসনে বৈধ ৭ প্রার্থী হলেন- আজিম উদ্দিন আহমেদ তৃনমূল বিএনপি, এবিএম জোবায়ের ইবনে সুফিয়ান বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট, তবারক হোসেন বাংলাদেশ সুপ্রীম পার্টি, নিজাম উদ্দীন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী জাতীয় পার্টি, মো. আবু নাছির ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ, রহিম উল্লাহ স্বতন্ত্র।

ফেনী জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তার তিনটি আসনে পাঁচ প্রার্থীর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, প্রত্যাহারের পর এখন বৈধ প্রার্থী ২১ জন। সোমবার প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্ধ দেয়া হবে।