শহর প্রতিনিধি->>

ফেনী পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজি বলেন, রিকশাচালকদের যেকোনো সমস্যায় পৌরসভা পাশে থাকবে। তাদের কেউ যদি অসুস্থ হয়, দুর্ঘটনার শিকার হয় বা কেউ মৃত্যুবরণ করলে দাফন-কাফনের সকল ব্যয়ভার আমরা গ্রহণ করব।

ফেনী পৌর এলাকার রিকশা মালিক ও চালকদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে ফেনী পৌরসভা আয়োজিত জনসচেতনতামূলক সমাবেশে এমন আশ্বাস দিয়েছেন পৌর মেয়র।

রোববার দুপুরে ফেনী শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দেন ফেনী পুলিশ সুপার জাকির হাসান।

পৌর রিকশা মালিক সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. আবুল হাসেমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম নয়নের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্যে দেন- প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহের, দৈনিক ফেনীর সময় সম্পাদক মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন, দৈনিক ফেনী সম্পাদক আরফুল আমিন রিজভী প্রমুখ।

ফেনীর পুলিশ সুপার বলেছেন, সাম্প্রতিক ফেনীর সবচেয়ে আলোচনার বিষয় ট্রাফিক। ফেনী ছাড়া অন্য কোথাও রিকশা ডান পাশ দিয়ে চলে না। এজন্য রাস্তায় প্রায়ই যানজটসহ দুর্ঘটনা ঘটছে। বিষয়টি জেলা প্রশাসনের মাসিক আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় একাধিকবার আলোচনা হয়েছে। এটিকে গুরুত্ব দিয়ে রিকশা মালিক, চালক ও যাত্রীদের নিয়ে শহরে রিকশা চলাচলের নিয়ম নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, রিকশা চালকদের সঙ্গে যাত্রীদের দ্বন্দ্বের কারণ ভাড়া। অনেকে চালককে মারধর করে। এসময় রাস্তায় নিয়ম মেনে রিকশা চলাচল করতে এবং মহাসড়কে রিকশা না চালানোর আহবান জানান পুলিশ সুপার জাকির হাসান।

মেয়র স্বপন মিয়াজি বলেন, তবে এ শহরকে সুন্দর ও সুশৃঙ্খল রাখতে রিকশা চালকদেরও দায়িত্ব আছে। শহরকে যানজটমুক্ত ও সুন্দর করতে আপনাদের সহযোগিতা প্রয়োজন।

সমাবেশে অন্যায়ভাবে গাড়ি আটক না করতে, যেকোনো পরিস্থিতিতে রিকশাচালকদের সহযোগিতা করার আহবান জানান রিকশা মালিক সমিতির নেতারা। সমাবেশ উপলক্ষে রিকশাচালকদের একদিনের ভাড়া মওকুফ করেন মালিকরা।

এসময় জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি জালাল উদ্দিন হাজারীসহ পৌর রিকশা মালিক সমিতি ও শহরের চলাচলরত রিকশাচালকরা উপস্থিত ছিলেন।