বিশেষ প্রতিনিধি->>

সারাদেশে বিএনপি-জামায়াতের ডাকা তিন দিনের অবরোধের শেষ দিন একটি ট্রাকে আগুন দিয়েছে অবরোধ সমর্থনকারীরা। বৃহস্পতিবার ভোররাতে (রাত ০৪.৩০) ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফেনী সদর উপজেলার লালপুর এলাকায় চিনিবোঝাই ট্রাকটিতে আগুন দিলে সামনের অংশ পুড়ে যায় বলে জানিয়েছে ফেনী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন কর্মকর্তা ওয়াসী আজাদ। অবরোধে প্রথম দু’দিনে ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

ফেনী ফায়ারসার্ভিস এর স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন কর্মকর্তা ওয়াসী আজাদ আরও বলেন, ভোর সাড়ে চারটার দিকে লালপুর এলাকায় একটি চিনিবোঝাই ট্রাকে পেট্রল ঢেলে আগুন দেওয়ার তথ্য পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে ট্রাকের সামনের অংশে পুড়ে যায়। গাড়িটি এস আলম গ্রুপের বলে জানা গেছে। আগুন নেভানোর সময় পুলিশ ও বিজিবির সদস্যরা উপস্থিত ছিলো।

ওয়াসী আজাদ আরও জানান, একই সময় অবরোধকারীরা সড়কে একটি গাছ কেটে ফেলে রেখেছিলো। ফায়ারসার্ভিস কর্মীরা সেটিও সরিয়ে সড়কে যানচলাচল স্বাভাবিক করে।

ফেনী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, মহাসড়কে ট্রাকে আগুনের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে। মামলার পর প্রয়োজনী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে বুধবার রাতে ফেনী-পরশুরাম আঞ্চলিক সড়কের ফুলগাজী উপজেলা সদর সংলগ্ন বিজয়পুর এলাকায় একটি ওষুধ কোম্পানির গাড়িতে ঢিল ছোড়ে দূর্বৃত্তরা। এতে গাড়ির সামনের অংশের কাঁচ ভেঙে যায়। এসময় গাড়িতে থাকা চালক ও কোম্পানির একজন বিপণনকর্মী এতে আহত হন। এ ঘটনায় রাতেই ফুলগাজী থানায় একটি মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ফুলগাজী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আবুল হাসিম।

এদিকে বৃহস্পতিবার সকালে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ বাহারের নেতৃত্বে কয়েকজন নেতা-কর্মী শহরের ট্রাংক রোডের ফেনী সেন্ট্রাল হাইস্কুলের সামনের অবরোধ সমর্থনে সড়কে মিছিল করে। তারা কিছু সময় সড়কের ওপর বসে অবস্থান করল পুলিশের গাড়ি দেখে নেতা-কর্মীরা সটকে পরে।

অপরদিকে বিএনপি-জামায়াতের টানা তিন দিনের অবরোধ কর্মসূচি সামনে রেখে ফেনীর মডেল থানায় বিএনপির নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে নতুন করে (বুধবার পর্যন্ত) আরও তিনটি মামলা করা হয়েছে। এ তিনটি মামলার মধ্যে দুটি মামলায় বাদী হয়েছে পুলিশ এবং একটি মামলার বাদী হয়েছেন একজন আওয়ামী লীগের কর্মী।

এ নিয়ে গত পাঁচ দিনে জেলায় বিএনপি–জামায়াতের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মোট ১৩টি মামলা করা হলো। এসব মামলার মধ্যে শুধু ফেনী মডেল থানায় ৭টি মামলা, ফুলগাজী থানায় দুটি এবং অপর চারটি থানায় একটি করে চারটি মামলা হয়েছে। জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ বুধবার পর্যন্ত আরও ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। এ নিয়ে পাঁচ দিনে ৮০ জনকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ফেনী পুলিশ সুপার (এসপি) জাকির হাসান জানান, অবরোধে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে শহরের বিভিন্ন পয়েন্ট ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে পুলিশ, র‍্যাব, বিজিবি, আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তৎপর রয়েছে।