শহর প্রতিনিধি->>

সারাদেশে শিক্ষক সম্প্রদায়ের উপর নিপীড়নের প্রতিবাদে ফেনীতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ। শুক্রবার সকালে ফেনীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ শিক্ষক ঐক্য পরিষদ, ফেনী জেলা শাখার উদ্যোগে প্রতিবাদ ও মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জেলার আহবায়ক অধ্যক্ষ পরমেশ চন্দ্র দাস।

সংগঠনের সদস্য সচিব কমল কান্তি ভৌমিকের সঞ্চায়লনায় প্রধান অতিথি ছিলেন হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ ফেনী জেলা শাখার সভাপতি শুকদেব নাথ তপন। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ঐক্য পরিষদ ফেনী জেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি সমির কর, হীরা লাল চক্রবর্তী, স্বাধীন চন্দ্র মজুমদার, রসিক শেখর ভৌমিক, বিজন বিহারী ভৌমিক, লিটন সাহা, অধ্যাপক বিপ্লব শীল, অধ্যাপক অজয় কুমার দেব, অধ্যাপক শুভ রাজ বনিক, দেবাশিষ পাল, গণেশ ভৌমিক, টিটু দত্ত, অর্জন কুমার নাথ, রিপন সাহা, মাস্টার উত্তম কুমার দত্ত, মৌমিত্র মজুমদার ও জীবন কৃষ্ণ রায় প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে যে কোন অন্যায় ও অবিচারের বিরুদ্ধে স্বোচ্ছার হতে হবে। দুবৃর্ত্তরা কারো বন্ধু হতে পারে না। এরা দেশ ও জাতির শত্রু। প্রভাষক উৎপল সরকারের হত্যাকারী দৃষ্টান্তমূলক শান্তির দাবী করেন যাতে আর কোন শিক্ষককে কুলাঙ্গার শিক্ষার্থীর হাতে প্রাণ দিতে না হয়।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি নড়াইলের মির্জাপুর ইউনাইটেড কলেজের অধ্যক্ষ স্বপনকুমার বিশ্বাস কিছু কুচক্রীমহল ধর্ম অবমাননার মিথ্যা অপবাদ দিয়ে জুতার মালা পরিয়ে চরমভাবে অপমান করা, একই কলেজের দুইজন শিক্ষক প্রশান্ত কুমার রায়, অজিত কুমার বিশ্বাসকে অন্যায় ভাবে মারধর করা, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সঞ্জয় সরকার ও উন্মেস রায়কে কোনঠাসা করে মানসিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করা, রাজাশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক অরুন কুমার বসাকের জায়গাজমি দখল করা ও আশুলিয়া হাজী ইউনুছ আলী স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক উৎপল সরকারকে পিটিয়ে হত্যা করা, বিভিন্ন সময়ে তুচছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংখ্যালঘু শিক্ষককে কোনঠাসা করার জন্য ধর্মীয় অপবাদ দিয়ে হেয় প্রতিপন্ন করার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।