দাগনভূঞা প্রতিনিধি->>

দাগনভূঞায় প্রেমিকার সাথে কথা কাটাকাটির জেরে গলায় গামছা পেঁছিয়ে আত্মহত্যা করেছে কলেজের শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ হোসেন উপম (২০)। শুক্রবার ভোরে দাগনভূঞা পৌর এলাকার ৪ নং ওয়ার্ড জগতপুর গ্রামের নবী ভেন্ডার বাড়ি থেকে উপমের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত ইমতিয়াজ হোসেন উপম দাগনভূঞা পৌর এলাকার জগতপুর গ্রামের নবী ভেন্ডার বাড়ির মোস্তাক আহমেদের ছেলে। সে ইকবাল মেমোরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থী ছিলো।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাতে তার প্রেমিকার সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ভিডিও কলে থাকা অবস্থায় গলায় গামছা পেঁছিয়ে আত্মহত্যা করে উপম। খবর পেয়ে পুলিশ তার বাড়িতে যেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাসান ইমাম জানান, এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার দাগনভূঞার রাজাপুর ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রাম থেকে ফারজানা আক্তার (১৪) নামের অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া এক ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। একই সময়ে ফুলগাজী উপজেলার নিলখী গ্রামের প্রবাসী আবু জাফরের ঘর থেকে তার স্ত্রী সোনিয়া আক্তার (২৮) এর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরিবারের লোকজনের ভাষ্য মতে, তিনি বিষপ্রাণ করে আত্মহনন করেছেন।

গত ২৪ ঘন্টায় দুই উপজেলায় তিনজন ব্যক্তি আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, ফেনীতে কয়েকমাস যাবৎ আত্মহননের ঘটনা আশঙ্খাজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় সচেতন মহল উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এনিয়ে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে সচেতনতা মূলক কর্মশালা ও বিভিন্ন প্রচারণামূলক কার্যক্রমও চলমান রয়েছে।