দাগনভূঞা প্রতিনিধি->>

দাগনভূঞায় এক মাদ্রাসাছাত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় অধ্যক্ষসহ দুজনকে আজ শুক্রবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে। দাগনভূঞা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল ওহাব সরকার জানিয়েছেন, গ্রেপ্তার দুজনকে ফেনীর আদালতে হাজির করা হলে আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে উপজেলার আমুভূঞারহাট হাছানিয়া দাখিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ বেলাল হোসেন এবং দুই শিক্ষক শেখ ফরিদ ও মোহাম্মদ উল্যাসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন ছাত্রীর মা।

পরিদর্শক ওহাব সরকার বলেন, অধ্যক্ষ বেলাল হোসেন ও শিক্ষক শেখ ফরিদকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর শিক্ষক পলাতক রয়েছে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, ফারজানা আক্তার (১৪) নামের ওই ছাত্রী মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণিতে পড়ত। একই মাদ্রাসার দশম শ্রেণির এক ছাত্রের সঙ্গে কথা বলতে দেখে ওই ছাত্রীকে কক্ষে ডেকে বকা দেওয়া ও অপমান করে বের করে দেন অভিযুক্ত ব্যক্তিরা। সে অপমান সহ্য করতে না পেরে ছাত্রী বাড়ি ফিরে আত্মহত্যা করে।

দাগনভূঞা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল ওহাব সরকার বলেন, শুক্রবার দুপুরে ফেনী ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতাল মর্গে ছাত্রীর লাশের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। মামলার বাকি দুই আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।