কাতার সংবাদদাতা->>

যৌথ ব্যবসার মাধ্যমে পাঁচ বছরে পাঁচ শতাধিক প্রবাসীর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন কাতারের দুই প্রবাসী বাংলাদেশি। তাদের পরিচালিত লিমুজিন কোম্পানিতে রয়েছে শতাধিক গাড়ি। প্রবাসীদের পাশে থাকতে পেরে খুশি এই দুই সফল ব্যবসায়ী।

কাতারে যৌথভাবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে সফলতা দেখিয়েছেন বাংলাদেশের ফেনীর দুই কাতার প্রবাসী ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হারুন ও মোজাম্মেল হক। ২০১৮ সালে ‘বেস্ট চ্যাম্পিয়ন লিমুজিন’ কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করে ব্যবসা শুরু করেন। বর্তমানে আরও দুটি কোম্পানি রয়েছে তাদের।

যৌথ ব্যবসার মাধ্যমে পাঁচ বছরে পাঁচশ’র বেশি প্রবাসীর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন মোহাম্মদ হারুন ও মোজাম্মেল হক। তাদের পরিচালিত লিমুজিন কোম্পানিতে রয়েছে শতাধিক গাড়ি। চলতি বছরের ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ সামনে রেখে কাতারে ব্যবসা সম্প্রসারণের কাজে প্রস্তুত তারা।

বেস্ট চ্যাম্পিয়ন লিমুজিন কোম্পানির স্বত্বাধিকারী মোজাম্মেল হক বলেন, আমাদের কোম্পানিতে এখন প্রায় পাঁচশ’ লোক কাজ করছেন। এদের মধ্যে অধিকাংশই বাংলাদেশি। এ ছাড়া এখানে নেপাল, ভারত ও পাকিস্তানের অনেক প্রবাসী রয়েছেন। আমরা সবসময় উন্নত সেবা দেয়ার চেষ্টা করি।

কোম্পানি আরেক স্বত্বাধিকারী মোহাম্মদ হারুন বলেন, ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ সামনে রেখে সুনামের সঙ্গে আমরা আমাদের ব্যবসা সম্প্রসারণ করার চেষ্টা করছি। আমরা কাতারের আইন মেনে ব্যবসা পরিচালনা করছি এবং আরও বেশি বাংলাদেশির কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে চাই।

এদিকে যৌথ মালিকানায় পরিচালিত লিমুজিন কোম্পানির ভালো সেবা পেয়ে প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের পাশাপাশি খুশি এখানে কর্মরত অন্য দেশের শ্রমিকরাও।

২৬ লাখের বেশি জনসংখ্যার দেশ কাতারে চার লাখের বেশি বাংলাদেশি কর্মরত রয়েছেন। দেশটিতে কিছু প্রবাসী ব্যবসা-বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত থাকলেও, অধিকাংশ প্রবাসী বাংলাদেশি নির্মাণশ্রমিক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

সূত্র: সময় সংবাদ