ঢাকা অফিস->>

ঢাকা মহানগর যুবলীগের (দক্ষিণ) সভাপতির পদ থেকে বহিষ্কার হওয়া ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় দেওয়া জামিন বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদনটি করা হয় বলে জানান সংস্থাটির আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

এ মামলায় গত বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ তিন শর্তে ১০ হাজার টাকা বন্ডে তার জামিন মঞ্জুর করে। শর্তগুলো হলো তিনি দেশের বাইরে যেতে পারবেন না, আদালতে পাসপোর্ট জমা দিতে হবে এবং নির্দিষ্ট সময় পর পর মেডিকেল রিপোর্ট জমা দিতে হবে।

এর আগে গত ১০ এপ্রিল মানি লন্ডারিং ও অস্ত্র মামলায় জামিন পান তিনি। পরে ১১ এপ্রিল মাদক মামলায়ও জামিন পান সম্রাট। জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় জামিন পাওয়ার পর তিনি মুক্তি পান।

এতদিন কারা তত্ত্বাবধানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন সম্রাট। মুক্তির পর তিনি হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন আছেন।

অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান বলেন, ‘তার (সম্রাট) জামিন বাতিল চেয়ে আমরা একটি ফৌজদারি রিভিশন আবেদন করেছি। আশা করি আগামীকাল (মঙ্গলবার) এটি শুনানির জন্য আসবে।’

ক্যাসিনো ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে ২০১৯ সালের ৭ অক্টোবর সম্রাটকে তার সহযোগী এনামুল হক আরমানসহ কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তাকে বিভিন্ন মামলায় রিমান্ডে নেয়া হয়। অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০১৯ সালের ১২ নভেম্বর সম্রাটের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। এতে বলা হয়, বিভিন্ন অবৈধ ব্যবসা ও অবৈধ কার্যক্রমের মাধ্যমে ২ কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার ৮৭ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন সম্রাট।