শহর প্রতিনিধি->>

বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেছেন, খুব শিগগিরই জনতার আদালতে আওয়ামী লীগের বিচার হবে। শেখ হাসিনার পতন হলে আওয়ামী লীগের খোঁজ পাওয়া যাবে না।
যেমনি পাওয়া যায়নি ১৫ আগস্টে শেখ মুজিবের পতনের পর। দেশব্যাপী বিএনপিসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর সন্ত্রাসীদের হামলার প্রতিবাদে ফেনীতে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নেতাকর্মী ও জনগণের উদ্দেশে বুলু বলেন, আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়ে এ সরকারকে উৎখাত করতে হবে। আজকে দেশের এক লাখ ১৫ হাজার কোটি টাকা ঋণ। উন্নয়নের নাম করে আওয়ামী লীগ জনগণের টাকা লুট করছে। আওয়ামী লীগ আসলে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সরকার নয়। তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে নিয়ে ব্যবসা করে। আওয়ামী লীগ অবৈধ সংসদের জন্ম দিয়েছে।

শনিবার (১৪ মে) বিকেলে ফেনী বড় বাজারের ইসলামপুর রোড়ে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ বাহারের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব আলাল উদ্দিন আলালের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন- কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন মজুমদার, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হারুনুর রশীদ, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক প্রফেসর এম এ খালেক, ইয়াকুব নবী ইয়াকুব, আলাউদ্দিন গঠন, ফেনী সদর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ফজলুর রহমান বকুল, ফেনী জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন পাটোয়ারী, ফেনী পৌর বিএনপির আহ্বায়ক মেসবাহ উদ্দিন মেসবাহ, জেলা যুবদলের সভাপতি জাকির হোসেন জসিম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক এস এম কায়সার এলিন, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক নইমুল্লাহ চৌধুরী বরাত, ফেনী জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ আলম ভূইঁয়া।

এ সময় বক্তারা প্রশাসনের উদ্দেশে বলেন, আওয়ামী লীগার সাজবেন না। এ সরকার শেষ সরকার নয়, আরও সরকার আছে। জনগণের টাকায় বেতন পেয়ে প্রকাশ্যে জনগণের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়ার ফল ভালো হবে না। আওয়ামী লীগের অসহনীয় দুর্নীতির কারণে আজ দেশ দেউলিয়া হওয়ার পথে।