আদালত প্রতিবেদক->>

ফেনীর স্টারলাইন গ্রুপ এর দায়ের করা চাঁদাবাজি ও মারামারি মামলায় দাগনভূঞা পৌরসভার কাউন্সিলর সাইফুল ইসলামসহ ৭ জনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ করেছে আদালত। সোমবার ফেনীর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. আতাউল হক এর আদালতে জামিন চাইলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

এর আগে গত ৩ মার্চ দাগনভূঞা দুধমুখা এলাকায় স্টারলাইন গ্রুপের আওতাধীন ড্রিমল্যান্ড স্পেশাল ও স্থানীয় কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম এর আওতাধীন ডিবি ড্রিমল্যান্ড চালক ও হেলপারদের মারামারির ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে ৪ মার্চ দাগনভূঞা থানায় স্টারলাইন গ্রুপের গণসংযোগ কর্মকর্তা জসীম উদ্দীন বাদী হয়ে ডিবি ড্রিমল্যান্ড এর ৭ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও মারামারি মামলা দায়ের করে।

মামলায় আসামি করা হয় পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম তার ভাই যুবলীগ নেতা সাইদুল হক পারভেজ, ডিবি ড্রিম লাইনের পরিচালক লিংকন চৌধুরী, কর্মচারী মো. জহির, ইয়াকুবপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেন ক্বারী, স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ তৈহিদ, মোঃ মুক্তাকে। আসামিরা পরবর্তীতে উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের জামিন লাভ করেন।

কাউন্সিলর সাইফুল ইসলামের বড় ভাই মো. রাসেল জানান, ‘উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহ জামিনের মেয়াদ গত রোববার শেষ হওয়ায় যথাসময়ে নিম্ন আদালতে হাজির না হওয়ায় আদালত তাদের জামিন বাতিল করে জেলহাজতে পাঠায়। আশা করছি পরবর্তী তারিখে আমাদের লোকজনের জামিন মঞ্জুর করে নেয়ায় বিচার করবে আদালত।’

কোর্ট পুলিশের জিআরও সাহাব উদ্দিন জানান, ড্রীম লাইনে হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ৭ আসামী জামিন প্রার্থনা করলে আদালত তাদেরকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেয়।

এদিকে ওই ঘটনায় কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম গত ৪ মার্চ কোম্পানীগঞ্জ থানায় বাদী হয়ে স্টারলাইন গ্রুপের লোক জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে।