নিজস্ব প্রতিনিধি->>

ফেনী সাংবাদিক ফোরাম ঢাকা’র সাবেক সভাপতি ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের বর্তমান সভাপতি সোহেল হায়দার চৌধুরী এবং ফেনী সাংবাদিক ফোরাম ঢাকা’র সদস্য দৈনিক দেশ রূপান্তরের সিনিয়র রিপোর্টার পাভেল হায়দার চৌধুরীর বাবা এহতেশামুল হায়দার চৌধুরী মিলন (৮৩) আজ মঙ্গলবার ইন্তেকাল করেছেন।

হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার ঘোপাল ইউনিয়নের নিজ বাড়িতে সকাল সাড়ে ১০টায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। (ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। প্রয়াত এহতেশামুল হায়দার চৌধুরী মিলন এলাকায় মিলন চৌধুরী নামে ব্যাপক পরিচিত ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি তিন ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

পাভেল হায়দার চৌধুরী বাবার মৃত্যুর খবর জানিয়ে বলেন, ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে আমার বাবা ইন্তেকাল করেন। তিনি ঢাকাতেই আমাদের সঙ্গে বসবাস করতেন। কিন্তু ঈদের সময় তিনি বাড়িতে গিয়ে আর ঢাকায় ফিরে আসেননি। মঙ্গলবার বাদ আসর নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মরহুমের দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। জানাজায় স্বজনরা ছাড়াও এলাকার জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও গ্রামবাসি উপস্থিত ছিলেন।

তার মৃত্যুতে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি ও বাসসের উপ-প্রধান বার্তা সম্পাদক ওমর ফারুক, নাগরিক টিভির বার্তা প্রধান দীপ আজাদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সাধারণ সম্পাদক আক্তার হোসেন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু এবং সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম হাসিবসহ সাংবাদিক নেতারা শোক প্রকাশ করেছেন।

এদিকে মিলন চৌধুরীর মৃত্যুতে মরহুমের রূহের মাগফিরাত কামনা এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন ফেনী সাংবাদিক ফোরাম ঢাকা। সংগঠনের সভাপতি তানভীর আলাদিন ও সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ উল্লাহ ভুঁইয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে সোহেল-পাভেলের পিতার মৃত্যুতে ফেনী সাংবাদিক ফোরাম ঢাকা’র শোক প্রশাক করেছেন।