শহর প্রতিনিধি->>

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস, মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে ফেনীতে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ফেনী পৌর আওয়ামী লীগের আয়োজনে সোমবার রাতে ফেনী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জমকালো এক সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশনে করেন জনপ্রিয় রকস্টার গুরু নগর বাউল জেমস, শিল্পী হাসান (আর্ক)। নাচের তালেতালে দর্শক মাতান চলচিত্র তারকা ফেরদৌস-পূর্নিমা, ওমর সানী-মৌসুমী, ব্যাচেলর পয়েন্টের কাবিলা, শুভ, পাশা ও হাবুসহ একঝাঁক তারকা।

অনুষ্ঠানে হাজার হাজার লোকের উপস্থিতিতে পাইলট হাই স্কুল মাঠ কানায় কানায় পূর্ন হয়ে আশেপাশের সড়ক ও ভবন সমূহে ভীড় করে ভক্ত ও দর্শকরা। বিকেলের পর থেকে শহরের কলেজ রোডে যানচলাচর বন্ধ হয়ে যায়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফেনী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মাহমুদ-উল-হাসান, পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন, জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, জেলার বিভিন্ন উপজেলার জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ।

ফেনী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী জানান, মুজিববর্ষ, মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী, বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী, নতুন বছর আর বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের দিনে এ সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানে বাড়তি মাত্রা যোগ করতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এখানে রক সঙ্গীত প্রেমীদের একসঙ্গে আনার পাশাপাশি তাদেরকে উৎসাহিত করবে জীবনটাকে আবারো আনন্দের সঙ্গে উপভোগ করতে। সেজন্য কনসার্টের পাশাপাশি বিভিন্ন আয়োজন করা হয়েছে।

সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে ফেনী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠটি বর্ণিল সাজে সাজানো হয়। ফেনী সরকারী কলেজ ভবন ও পাইলট হাই স্কুলের পরিত্যক্ত ভবনটিসহ আশাপাশের ভবন, মাঠ ও সড়ক সমূহ আলোকসজ্জ্বায় সজ্জ্বিত করা হয়।

প্রসঙ্গত, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে গত বছরের ৩১ মার্চ মনোজ্ঞ এই সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা প্রকোপের কারণে জনসমাগম এড়াতে তখন অনুষ্ঠানটি স্থগিত করা হয়েছিলো।

Sharing is caring!