ছাগলনাইয়া প্রতিনিধি->>

ছাগলনাইয়া উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের উত্তর মন্দিরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্রে বিশৃংখলা অনিয়মের অভিযোগে দুপুর ২টার দিকে নির্বাচন স্থগিত করেছে প্রশাসন। এর আগে বেলা ১১টার দিকে ওই ওয়ার্ডের (৯নং ওয়ার্ড) প্রতিদ্বন্দ্বি চার প্রার্থীকে আটক করেছিলো পুলিশ।

জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মাহমুদ-উল হাসান জানান, অনিয়মের অভিযোগে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে পরবর্তীতে ওই কেন্দ্রে পুনঃ নির্বাচন করা হবে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, উত্তর মন্দিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মেম্বার প্রার্থীরা হট্টগোল ও বিশৃংখলা করার কারণে তাদের চার জনকে আটক করা হয়। তাদের আটকের পর তাদের সমর্থকরা বিভিন্ন এলাকা থেকে এসে নির্বাচনী কেন্দ্রে জাল ভোট দেয়ার চেষ্টা করে। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসন সেখানে নির্বাচন স্থগিত করে।

আটককৃত চার মেম্বার প্রার্থী হচ্ছেন, ছাগলনাইয়া উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে উত্তর মন্দিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রতিদ্বন্দি মেম্বার প্রার্থী আবুল কালাম (মোরগ), শওকত জোবায়ের (আপেল), মো. সোহেল রানা (ফুটবল) ও মো. সেলিমকে (তালা)।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. আজগর আলী বলেন, দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত পরশুরাম থেকে ১৫ জন এবং ছাগলনাইয়া থেকে ১০ জনকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, গোপন কেন্দ্রে ডুকে ইভিএমে বাটন টিপে ভোট প্রদান ও সহযোগিতার অপরাধে নাসিমা বেগম ও তামান্না আক্তার নামের দুই জন পোলিং অফিসারকেও প্রত্যাহার করেছে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

পরশুরামের মীর্জানগর ইউনিয়নের মির্জানগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকের পোলিং এজেন্ট আরিফ, মেম্বার পদ প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট আবু বক্কর আটক করা হয়।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, ৮ টি ইউনিয়নে ২২ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী, সাধারণ সদস্য পদে ২৫১ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা পদে মোট ৫৬ জন নির্বাচনে লড়েছেন।

Sharing is caring!