ফুলগাজী প্রতিনিধি->>

ফুলগাজী উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের মধ্যে তিনটিতে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী থাকায় তারা বিনা ভোটে জয়ী হচ্ছেন। একই সাথে মনোনয়ন প্রত্যহার করে নেওয়ায় আরও চার মেম্বার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন।

চেয়ারম্যান পদে যারা বিজয়ী হচ্ছেন তারা হলেন, ফুলগাজী সদর ইউনিয়নে মো. সেলিম, মুন্সীর হাট ইউনিয়নে নুরুল আমিন ও আনন্দপুর ইউনিয়নে হারুন মজুমদার। অপরদিকে সাধারণ সদস্য পদে মুন্সীর হাট ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড (উত্তর আনন্দপুর) সোলেমান ভুঞা ও আনন্দপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড (বন্দুয়া দৌলতপুর) মো. মজিবুল হক, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে আমজাদ হাটের ৭,৮,৯ ওয়ার্ড (উত্তর তারাকুচা, দক্ষিণ তারাকুচা ও ফেনাপুস্করনি) নাছিমা আকতার ও মুন্সীরহাট ইউনিয়নের ৭,৮,৯ ওয়ার্ড (দক্ষিণ শ্রীপুর, উত্তর আনন্দপুর ও ফতেহপুর) ফরিদা আকতার।

এদিকে উপজেলার দরবারপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী নিজাম উদ্দিনের সাথে নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মাঠে রয়েছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) সমর্থিত প্রার্থী দুলাল বৈদ্য। জিএমহাট ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী সৈয়দ জাকির হোসেনের সাথে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু তাহের মিয়াজি ও মো.শাহ আলম।
আমজাদহাট ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী মির হোসেনের সাথে রয়েছেন বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবুল হাসেম। জাসদ সমর্থিত প্রার্থী সুরুজ্জামান। এছাড়াও এই ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন কাজী আবদুল আলী ও নিজাম উদ্দিন।

এর আগে গত ১৭ অক্টোবর প্রার্থীরা মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। গত ২১ অক্টোবর বাছাই ও ২৬ অক্টোবর প্রার্থী প্রত্যাহারের দিন ধার্য তারিখ ছিল। তফসিল অনুযায়ী আগামী ১১ নভেম্বর উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Sharing is caring!