নিজস্ব প্রতিনিধি->>

ফেনীতে মন্দিরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় রবিউল হক (৩০) নামে আরও একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার তাকে আদালতে পাঠিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন জানায়। আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট কামরুল হাসান শুনানী শেষে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গ্রেপ্তার রবিউল হক ছাগলনাইয়া উপজেলার মধ্যম মটুয়া গ্রামের আবদুল গনির ছেলে।

এ নিয়ে পুলিশসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর পৃথক অভিযানে চারটি পৃথক মামলায় ২২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ইতিমধ্যে মন্দিরে হামলা-ভাংচুরের ঘটনায় জড়িত থাকার দায় স্বীকার করে দুইজন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। গ্রেপ্তার আরও ছয়জনকে আদালতের অনুমতি নিয়ে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা পুলিশকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ অক্টোবর রাতে শহরের কালীপাল গাজীগঞ্জ মহা প্রভুর আশ্রম, ট্রাংক রোড ও বড় বাজারের দুটি কালী মন্দিরে হামলা, শহরের তাকিয়া রোডে হিন্দুদের দোকানপাট ভাংচুরের ঘটনায় জড়িত অভিযোগে পুলিশ, র‌্যাব ও মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে ফেনী সদর মডেল থানায় মোট চারটি পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Sharing is caring!