সদর প্রতিনিধি->>

ফেনীতে ইয়াবাসহ মো. রাসেল নামে এক যুবককে ‘আটককে দুই ঘন্টার পর নির্দোষ প্রমানিত হওয়ায়’ ছেড়ে দিয়েছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার ধলিয়া বাজারের পশ্চিমে মসজিদ সংলগ্ন একটি লাইব্রেরীতে এমন ঘটনা ঘটে।

মো. রাসেল ফেনী সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়নের ধলিয়া বাজার সংলগ্ন তাজু মুহুরী বাড়ির ওবায়দুল হকের ছেলে।

মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের নিয়সিত অভিযানের অংশ হিসেবে সদর উপজেলা ধলিয়া ইউনিয়নের ধলিয়া বাজারের পশ্চিমে মসজিদ সংলগ্ন একটি লাইব্রেরী এলাকায় অভিযান চালায় একটি দল। এসময় ইয়াবাসহ মো. রাসেলকে আটক করে। মাদক বিক্রেতা রাসেল দীর্ঘদিন লাইব্রেরী দোকানের পাশাপাশি ‘মাদকের ব্যবসা করে আসছিলো বলে অভিযোগ’ ছিলো।

এদিকে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার আহমদ মুন্সি বলেন, আটককৃত রাসেল এলাকায় ভালো ছেলে হিসেবে পরিচিত। রাসেল কখনও এলাকায় সিগারেট, পান খেয়েছে কেউ দেখেনি। কোন মাদক সেবনকারী ও বিক্রেতাদের সাথে রাসেলের কোনো ধরনের সম্পর্ক নেই বলে এলাকার সকলে একমত পোষন করেছে।

চেয়ারম্যান আনোয়ার আহমদ মুন্সি আরও বলেন, রাসেলের দোকানে কেউ ইয়াবা রেখে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করেছে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল হামিদ জানান, ‘তথ্যদাতা আমাদের মিসগাইড করেছে। আসলে যার দোকানের মাদক পাওয়া গিয়েছে তিনি একজন ভাল মানুষ বলে এলাকার জনপ্রতিনিধি, বাজার কমিটি ও বাজারের অন্যান্য ব্যবসায়ীরা সার্টিফাই করেছে। তাই তাকে তাদের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। এবং তথ্যদাতা নিজেই একজন মাদক কারবারী হিসেবে তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরসহ আইনি ব্যবস্থা করা হবে।’

Sharing is caring!