ডেস্ক রিপোর্ট->>

টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপটা একেবারে খারাপ যাচ্ছিল না মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের। ওমানে প্রথম পর্ব থেকে শুরু করে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সুপার টুয়েলভের প্রথম ম্যাচ— উইকেট পেয়েছেন সব ম্যাচেই।

কিন্তু দূর্ভাগ্য সাইফউদ্দিনের—পিঠের চোটে পড়ে মাঝপথেই শেষ হয়ে গেল তাঁর বিশ্বকাপ।

মঙ্গলবার রাতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে এই খবর। সাইফউদ্দিনের পরিবর্তে বিশ্বকাপের দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে দলের সঙ্গেই রিজার্ভ খেলোয়াড় হিসেবে থাকা অভিজ্ঞ রুবেল হোসেনকে।

সাইফের চোটের বিষয়ে বিসিবির গণমাধ্যম ও যোগাযোগ কমিটির ম্যানেজার রাবীদ ইমাম বলেন, “সে (সাইফ) গত ম্যাচের পর ব্যথা অনুভব করার কথা বলেছিল। পিঠে…বাঁ দিকে।”

দল সূত্রে জানা গেছে, সাইফউদ্দিন পিঠের চোটে পড়েন শারজায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের দিনই। পরে স্ক্যান রিপোর্টে কোমরের হাড়ে ফাটল ধরা পড়ায় টিম ম্যানেজমেন্ট তাঁকে দেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়। কোভিড পরীক্ষার আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলেই দেশের বিমান ধরবেন তিনি।

প্রথম পর্বে স্কটল্যান্ড এবং ওমানের বিপক্ষে ১টি করে উইকেট নিয়েছেন সাইফউদ্দিন। পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে নেন ২ উইকেট। ১ উইকেট নিয়েছেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচেও।

প্রয়োজনের সময় বল হাতে ব্রেক থ্রু দেওয়ার কাজটা ভালোই করেন এই পেসার। নির্ভরতা দিতে পারেন ব্যাট হাতেও। পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে করেছিলেন অপরাজিত ১৯ রান।

গত রোববার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৫ উইকেটে হেরে যাওয়া ম্যাচে তিন ওভার বল করে ৩৮ রান খরচায় এক উইকেট নিয়েছিলেন সাইফ।

এদিকে এতদিন মূল দলের সঙ্গে রিজার্ভ খেলোয়াড় হিসেবে ছিলেন রুবেল। বাংলাদেশের হয়ে এখন পর্যন্ত ২৮ টি-টোয়েন্টির সবশেষটি খেলেছেন তিনি গত এপ্রিলে, নিউ জিল্যান্ড সফরে। এই সংস্করণে দেশের হয়ে তার উইকেট ২০টি।

সুপার টুয়েলভে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ বুধবার ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে। বাংলাদেশ সময় ম্যাচটি শুরু হবে বিকাল চারটায়।

সূত্র দৈনিক প্রথম আলো ও বিডিনিউজ

Sharing is caring!