আদালত প্রতিনিধি->>

ফেনীতে মাদক মামলা আসামী জাহাঙ্গীর আলমকে (২৩) দুই বছর ছয় মাস সশ্রম কারাদন্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার সকালে ফেনী জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ২য় আদালত এর অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইন এ রায় প্রদান করেন। আসামী জাহাঙ্গীর আলম
কক্সবাজার জেলার টেকনাফ পৌরসভা ২নং ওয়ার্ডের মো. ফরিদুল আলমের ছেলে। রায় প্রদানের সময় আসামী পলাতক ছিলো।

রাষ্ট্রপক্ষের মামলা পরিচালনাকারী এপিপি নিমাই লাল সূত্রধর জানান, ২০১৭ সালের ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফতেহপুর স্টার লাইন পেট্রোল পাম্পের পাশে যাত্রীবাহী বাস তল্লাশি করে ফেনী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। এসময় বি-বাড়িয়া থেকে চট্টগ্রামগামী যাত্রীবাহী বাস স্টার ল্যান্ড (ঢাকা মেট্রো ব-১৪-০০৮১) তল্লাশী কররে বসা বাসযাত্রী জাহাঙ্গীর আলমের হাতে থাকা একটি স্কুল ব্যাগ থেকে ৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেন গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় এসআই দুর্লভ চন্দ্র দাস বাদী হয়ে জাহাঙ্গীর আলমকে আসামী করে ফেনী মডেল থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোহাম্মদ শাহিন মিয়া আসামীকে অভিযুক্ত করে ২০১৭ সালের ১২ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০১৮ সালের ১৪ জানুয়ারী আসামী জামিন নিয়ে পলাতক রয়েছে।

দীর্ঘ শুনানি ৫ জনের সাক্ষীর সাক্ষগ্রহণের শেষে আদালত রায় ঘোষণা করেন। রায়ে আসামীর দুই বছর ছয় মাস সশ্রম কারাদন্ড ও পাঁচ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন আদালত।

Sharing is caring!