বিশেষ প্রতিনিধি->>

ফেনীর দাগনভূঞা পৌরসভায় আগামী ১৬ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আসন্ন এ নির্বাচনে বৃহস্পতিবার ছিলো প্রচার-প্রচারণার শেষ দিন। মাঠে রয়েছেন আওয়ামী লীগ-বিএনপি সমর্থিতসহ চার মেয়র প্রার্থী।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, ভোটে লড়াই হবে মূলত আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ওমর ফারুক খান ও বিএনপির মেয়র প্রার্থী কাজী সাইফুর রহমান স্বপনের মধ্যে। এর মধ্যে বর্তমান মেয়র ওমর ফারুক গত দুইবারের নির্বাচিত মেয়র। এবার জয় লাভ করলে তিনি মেয়র পদে হ্যাটট্রিক করবেন। অপর দিকে সাইফুর রহমান স্বপন এ নিয়ে দ্বিতীয়বার নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

ওমর ফারুক খানের প্রত্যাশা এবারও তিনি জনগণের বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে জনগণ তাকেই ভোট দেবে।

অপরদিকে সাইফুর রহমান স্বপন বলছেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে রেকর্ড সংখ্যক ভোট পেয়ে তিনি নির্বাচিত হবেন। তার মতে, নৌকা নয় বরং এ অঞ্চলের মানুষের আস্থা ধানের শীষ প্রতীকেই। জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে জয়লাভ করে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর জয়ের হ্যাটট্রিক ঠেকাতে চান বিএনপির এ প্রার্থী।

বিএনপির মেয়র প্রার্থী কাজী সাইফুর রহমান স্বপন অভিযোগ করেন, তার ভোটারদের, দলীয় নেতা ও ধানের শীর্ষ কর্মীদের আওয়ামী লীগ নানাভাবে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। নেতাকর্মীরা একদিন প্রচার-প্রচারণায় অংশ নিলে পরের দিন তাদের আর পাওয়া যায় নি। তাদের গোপনে হুমকি দিয়ে নিষেধ করছে আওয়ামী লীগের লোকেরা। এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

স্বপনের অভিযোগ সত্য নয় দাবি করে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ওমর ফারুক খান বলেন, আগের নির্বাচনে স্বপন মিথ্যাচার করেছেন সেটি পৌরবাসীর অজানা নয়। নির্বাচন এলেই তারা মিথ্যাচার করে। এটি বিএনপির পুরনো অভ্যাস। আমরা তাদের প্রচার-প্রচারণায় বা তার সমর্থকদের কোনো ধরনের বাধা, হুমকি-ধামকি দিচ্ছি না। আমরা চাই অবাধ, সুষ্ঠু ও উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে মেয়র ও পাঁচ কাউন্সিলর পদে ভোটগ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার নাছির উদ্দিন পাটোয়ারী।

নির্বাচনে মেয়র পদে চারজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের ওমর ফারুক খান, বিএনপির মেয়র প্রার্থী কাজী সাইফুর রহমান স্বপন, জাতীয় পার্টির বিনোদ বিহারী ভৌমিক ও স্বতন্ত্র প্রার্থী তারেক আজিজ খান।

Sharing is caring!