পরশুরাম প্রতিনিধি->>

পরশুরামে এক প্রতিবন্ধী তরুণীকে (২০) ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় নামনুর আলমকে (৫২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার তাকে ফেনীর বিচারিক হাকিমের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি পরশুরাম উপজেলার বক্সমাহমুদ ইউনিয়নের দক্ষিন চারিগ্রামের ননু মিয়ার ছেলে।

পুলিশ জানায়, গত ১৬ অক্টোবর বাড়ীর পাশে একটি মসজিদের সামনে মিলাদের তবরুক খাওয়ার জন্য যায় প্রতিবন্ধী তরুণী। নুর আলম ওই তরুনীকে তবরুক খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে পাশে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় স্থানীয় একজন পথচারী ওই তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনাটি দেখে ফেলেন। গত ২৪ অক্টোবর ওই পথচারী ধর্ষণের বিষয়টি প্রকাশ করেন। এনিয়ে এলাকায় তীব্র সমালোচনা ও উত্তেজনা দেখা দেয়। গত ২৭ অক্টোবর মঙ্গলবার ওই তরুণীর মা বাদী হয়ে পরশুরাম থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত নুর আলমকে গ্রেপ্তার করে।

পরশুরাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শওকত হোসেন জানান, বুধবার ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ওই তরুণীর শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। একই দিন আদালতে ওই তরুণী ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

Sharing is caring!