লাইফস্টাইল ডেস্ক->>

ত্বকের যত্নে বিভিন্ন উপাদান দিয়ে তৈরি বিভিন্ন মাস্ক একবারে ব্যবহার করা যায়।

এই পদ্ধতির নাম ‘মাল্টি-মাস্কিং’। যা একই সঙ্গে ত্বকের নানাবিধ সমস্যার সমাধান করে ও ত্বক ভালো রাখে।

রূপচর্চা-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ত্বকে ‘মাল্টি মাস্কিং’য়ের উপকারিতা সম্পর্কে জানানো হল।

‘মাল্টি-মাস্কিং’ অর্থ হল একই সময়ে মুখের বিভিন্ন অংশে তার প্রয়োজন বুঝে ভিন্ন ভিন্ন মাস্ক ব্যবহার।

দ্রুত উপকার পেতে মুখের তৈলাক্ত অংশে ‘অয়েল-কন্ট্রোল’ মাস্ক, শুষ্ক অংশে ‘হাইড্রেইটিং মাস্ক’ এবং ময়লা দূর ও গভীর থেকে ত্বক পরিষ্কার করতে ‘ডিপ ক্লিনিং মাস্ক’ ব্যবহার করতে পারেন।

এই পদ্ধতিতে মাস্ক ব্যবহারের সুবিধা হল একই সময়ে একাধিক ত্বকের সমস্যা দূর করার পাশাপাশি নিজের পছন্দ মতো ত্বক উপযোগী সবচেয়ে ভালো মাস্ক ব্যবহার করা যায়।

বহুমুখী মাস্কের উপকারিতা

মুখের ত্বকের ভিন্ন ভিন্ন সমস্যা সমাধানের জন্য নির্দিষ্ট সমস্যাকে কেন্দ্র করে আলাদা আলাদা মাস্ক ব্যবহার করা হয়। এটা ত্বকের জন্য উপযুক্ত কিনা তা চিন্তা না করেই নিশ্চিন্তে ও আরামদায়কভাবে ব্যবহার করতে পারেন।

ত্বক মিশ্র হলে, তৈলাক্ত অংশ বা টি-জোনে ‘অয়েল কন্ট্রোল ফেইস মাস্ক’ ব্যবহার করতে পারেন।

এটা নির্দিষ্ট সমস্যার সমাধান করে। থুতনির অংশ শুষ্ক হলে সারা মুখের পরিবর্তে সেখানে আর্দ্রতা রক্ষাকারী মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন।

এটা দ্রুত ও কার্যকর উপায়ে সমস্যার সমাধান দেয়। এছাড়াও এটা ত্বকের কোনো ক্ষতি করে না বা ত্বকের কোনো সমস্যাকে বাড়িয়ে তোলেনা। বরং বেশি কার্যকর ফলাফল পেতে সহায়তা করে।

বিবেচ্য বিষয়

মাস্ক বাছাই করার আগে ত্বকের ধরন ও এর প্রয়োজন বুঝে নিতে হবে। এছাড়াও যে পণ্যটি ব্যবহার করছেন তার উপাদানগুলো সম্পর্কে জেনে ব্যবহার করা উচিত।

Sharing is caring!