শহর প্রতিনিধি->>

ফেনীতে ধর্ষণ ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে মৌন প্রতিবাদ করেছে তরুণসহ বিভিন্ন পেশার জনগণ। মঙ্গলবার সন্ধায় ফেনীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে মোমবাতি প্রজ্বলন করে অন্ধকারে আলো ফুটাতে চেয়েছে ছোট্ট শিশু থেকে শুরু করে ছাত্র, কিশোর-কিশোরী, যুবা সহ সববয়শী নারী ও হিজড়া সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা।

মঙ্গলবার বিকালে ফেনী শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সচেতন ফেনী’র ব্যানারে আমরা ভালোর সঙ্গে অ ভা স, ফেনীর ঢোল ও সহায়সহ তিন সংগঠনের ব্যবস্থাপনায় ব্যতিক্রমী মৌন প্রতিবাদ কর্মসূচির আয়োজন করে। ‘যেখানেই নারী নির্যাতন, সেখানেই প্রতিবাদ-প্রতিরোধ’ এর আহ্বান জানিয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে বসে মৌন প্রতিবাদ করে। ফেনীর সমমনা প্রায় দেড় ডজন সংগঠনের কয়েক শতাধিক নেতৃবৃন্দ ধর্ষণ ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে এ কর্মসূচীতে সংহতি প্রকাশ করে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, বেদীতে সবাই নিশ্চুপ ভাবে বসে আছে। জাতীয় পতাকার পানে করুণভাবে চেয়ে আছেন এক নারী। শিশু, কিশোরী ও নারী বিভিন্ন অঙ্গ ভঙ্গিতে প্রকাশ করছে ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ। সন্ধ্যায় সকলের হাতে জ্বলছে প্রতিবাদের অগ্নিশিখা স্বরূপ মোমবাতি। প্রজ্জ্বলিত মোমবাতি অন্ধকার ঠেলে আলোর আগমনী বার্তা দিচ্ছিল। চোখে-মুখে ঘৃণা প্রকাশ পাচ্ছে নারী নির্যাতনকারী ও ধর্ষণকারীদের প্রতি। সবার আকাঙ্খা, বন্ধ হোক নারীর প্রতি সহিংসতা।

কর্মসূচরি অন্যতম উদ্যোক্তা সামাজিক সংগঠন সহায়ের সমন্বয়ক মঞ্জিলা আক্তার মিমি বলেন, আমরা ধর্ষিতার আকুল আর্তনাদে লজ্জিত ও নিমজ্জিত। শিশু, কিশোরী, তরুণী, বৃদ্ধা, মানসিক ভারসাম্যহীন এমনকি হিজড়ারাও আজ অরক্ষিত। তিনি বলেন, ধর্ষণের জন্য কোনভাবেই নারীর পোষাক দায়ী না, ধর্ষণের জন্য ধর্ষকের মন মানসিকতা দায়ী। অভিযুক্ত সকল ধর্ষকের শাস্তি দাবী করেন তিনি।

মৌন প্রতিবাদের আগত মালা হিজড়া বলেন, সারা দেশে নারী নির্যাতন হচ্ছে, মেয়েদের উপর অত্যাচার হচ্ছে, নারীরা ধর্ষণের শিকার হচ্ছে। নারীর প্রতি সকল ধরনের সহিংসতা বন্ধে, অবমাননার বিরুদ্ধে আমাদের স্পষ্ট অবস্থান। যারা ধর্ষক আমরা তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী করছি।

প্রতিবাদে অংশ নেয়া সংগঠনগুলো হল- সহায়, পরিবর্তন, আমরা যুবরা চাই পরিবর্তন, পথের ফুল ফাউন্ডেশন, সী ফাউন্ডেশন, গ্রেস হেল্প এইড ক্লাব, ইয়ার নুরুল্লাহপুর, হাজী পাড়া ক্রীড়া চক্র, তারালিয়া শান্তি সংঘ, নোয়াগাঁও যুব সংগঠন, উত্তর কাশিমপুর স্বপ্নছায়া, রক্ত কণিকা বাংলাদেশ, ফেনী ব্লাড ডোনেট এসোসিয়েশন, ওয়েল ফেয়ার ব্লাড ফাইটার্স, ফেনী ফুড এন্ড ব্লাড ব্যাংকিং, নবজীবন রক্তদান ফোরাম, ফ্রেন্ড ইউনিটি ব্লাড ডোনার ক্লাব, কাজীরবাগ ব্লাড ডোনেট ক্লাব, সোনাগাজী ব্লাড ডোনেট অর্গানাইজেশন, ছাগলনাইয়া ব্লাড ডোনার্স ক্লাব প্রমুখ।

একই সময় শহরের ট্রাংক রোডে বাম গণতান্ত্রিক জোটসহ অসংখ্য সংগঠন মানববন্ধন, প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিলে মিছিল করে।

এদিকে এক ঝাঁক তরুণ ‘কাঁদছে বিবস্র বাংলাদেশ’ নামে দলমাদল এর একটি পুস্তিকা প্রকাশনা মানুষের হাতে তুলে দেন।

Sharing is caring!