ফুলগাজী প্রতিনিধি->>

ফুলগাজীতে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ে বন্ধ করলো উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাইফুল ইসলাম সোহেল। ধর্মপুর এডুকেশনাল এস্টেট’র অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া ওই ছাত্রীর সাথে রোববার ছাগলনাইয়া উপজেলার পাঠান নগর এলাকার প্রবাসী এক ছেলের সাথে (২৩) বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। বরযাত্রী আসার আগে শুক্রবার বাল্য বিয়েটি বন্ধ করে দেন ইউএনও।

জানা যায়, স্থানীয়দের মাধ্যমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বাল্য বিয়ের বিষয়টি অবগত হয়। এসময় তিনি তাৎক্ষনিক আমজাদহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মীর হোসেন মীরুকে ইউনিয়নের দক্ষিণ তারাকুচা গ্রামে ওই স্কুলছাত্রীর বাড়ীতে প্রেরণ করে। ইউএনও এসময় ছাত্রীর মায়ের সাথে ফোনে কথা বলে বিয়ে বন্ধের নির্দেশ দেয়। ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়ে বিয়ে না দেয়ার নির্দেশও দেন তিনি।

ধর্মপুর এডুকেশনাল এস্টেট’র প্রধান শিক্ষক জসিম উদ্দিন বলেন, বিয়ে বিষয়টি তিনি আগে জানতেন না। তবে ইউএনও হস্তক্ষেপে বিয়ে বন্ধ হওয়ায় তিনি ইউএনওকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

Sharing is caring!