শহর প্রতিনিধি->>

ফেনীতে শিক্ষার্থীদের বেতন ফি মওকুফসহ চার দফা দাবিতে মিছিল সমাবেশে করেছে ছাত্র ফ্রন্ট। শিক্ষা দিবস উপলক্ষে ‘শিক্ষার বানিজ্যিকীকরণ, বেসরকারিকরণ ও সাম্প্রদায়িকীকরণ রুখে দাড়াও’ প্রতিপাদ্যে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ফেনী শহর শাখার উদ্যোগে মিছিল ও সমাবেশ করে।

ইভান তাহসীবের সঞ্চালনায় শহরের ট্রাংক রোডের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন নয়ন সরকার, ফুয়াদ রাতুল, কাজী সাগর এবং সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ফেনী শহর শাখার আহ্বায়ক নয়ন পাশা।

সমাবেশে দাবি জানানো হয়, করোনা কালীন সময়ে স্কুল-কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের এ বছরের বেতন ফি মওকুফ ও অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের তালিকা তৈরি করে বিশেষ বরাদ্দ প্রদান করতে হবে। পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহন ব্যতিত অনলাইন ক্লাস বাতিল করতে হবে। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বিশেষ বরাদ্দ প্রদান এবং নিপীড়নমূলক ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮’ বাতিল করতে হবে। মিছিলটি ফেনী শহরের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা প্রদক্ষিণ করে সমাবেশ করে।

সমাবেশ শেষে ফেনী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ১৯৬২ সালের শিক্ষা আন্দোলনের শহীদের উদ্দেশ্যে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়।

প্রসঙ্গত, ১৯৬২ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর তৎকালীন সামরিক আইয়ুব খান সরকারের তথাকথিত জাতীয় শিক্ষানীতি নামক সাম্রদায়িকতা, উচ্চশিক্ষা বিমুখী ও শিক্ষা বানিজ্য নির্ভর গণবিরোধী শিক্ষা সংকোচন নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গিয়ে শহীদ হন মোস্তফা, ওয়াজিউল্লাহ, বাবুল সহ নাম না জানা আরো অনেকেই। সে থেকে এই দিনটিকে শিক্ষা দিবস হিসেবে পালন করে।

Sharing is caring!