নিজস্ব প্রতিনিধি->>

ফেনী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজ আহম্মদ চৌধুরীর প্রথম নামাজে জানাযা বাদ আছর মিজান ময়দানে ও দ্বিতীয় জানাযা বাদ মগরিব নিজ গ্রামে অনুষ্ঠিত হবে। পরে তার মরদেহ ফুলগাজী উপজেলার আনন্দপুর ইউনিয়নের হাসানপুর চৌধুরী বাড়ীর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

এর আগে সোমবার দিবাগত রাত ২টা ২০ মিনিটে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ফেনী ডায়াবেটিক হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন বর্ষিয়ান রাজনীতিক আজিজ আহম্মদ চৌধুরী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। মৃত্যুকালে দুই ছেলে, ছেলের বউ, নাতী-নাতনী রেখে গেছেন।

জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও আজিজ আহম্মদ চৌধুরীর ছোট ছেলে চৌধুরী আহমেদ রিয়াদ আজিজ রাজীব জানান, আজিজ আহম্মদ চৌধুরী ১৯৩৯ সালের ২ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। বাবা সুলতান আহম্মদ চৌধুরী ও মা আজিজের নেছা চৌধুরানী। তাঁর পৈত্রিক বাড়ি ফুলগাজী উপজেলার আনন্দপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ আনন্দপুর গ্রামের হাসানপুর চৌধুরী বাড়ী। শিক্ষাজীবনে ময়মনসিংহ আনন্দমোহন কলেজ থেকে বি.এ পাশ করেন। কর্মজীবনে তিনি শিক্ষকতা পেশায় যোগ দেন। এর কিছুদিন পর রাজনীতি আর সমাজসেবায় সক্রিয় হন।

আজিজ আহম্মদ চৌধুরী জেলা পরিষদ ছাড়াও ফেনী রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

তার মৃত্যুতে ফেনী-২ আসনের সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী, জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবদুর রহমান বিকমসহ বিভিন্ন জন শোক জানিয়েছেন।

Sharing is caring!