সোনাগাজী প্রতিনিধি->>

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আবদুল বাকী (৮৩) নামে এক প্রকৌশলীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার মধ্যরাতে চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তিনি সোনাগাজী উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের আহম্মদপুর এলাকার বাসিন্দা ও চট্টগ্রাম ন্যাশনাল পলিটেকনিক্যাল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ ছিলেন। করোনায় আবদুল বাকী মৃত্যুর ১৬ দিন পূর্বে তার ছেলে প্রকৌশলী মো. সাহেদও মারা যায়।

উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জহিরুল আলম বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন চট্টগ্রামের বেসরকারী কোম্পানীতে কর্মরত প্রকৌশলী মো. সাহেদ। পরে এক একে তার বাবা-মাসহ পরিবারের সবাই করোনায় আক্রান্ত হয়। এর মধ্যে প্রকৌশলী মো. সাহেদের অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রকৌশলী মো. সাহেদ গত ১৮ আগষ্ট মারা যায়। তবে সাহেদ এর বাবা-মাসহ অপর আক্রান্তরা হোম আইসোরেশনে থেকে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়ে যান।

এদিকে ছেলের মৃত্যুর ২দিন পর গত ২০ আগষ্ট প্রকৌশলী আবদুল বাকী পুনরায় হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে ভর্তি হন।হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাতে তার মৃত্যু হয়।

মৃত্যুর পর শনিবার সকালে স্বজনরা তার লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসেন। বিকেলে জানাযা শেষে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় তার মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

Sharing is caring!