বিনোদন ডেস্ক->>

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন কলেজের মেধাতালিকায় দেখা গেছে সানি লিওনি, মিয়া খলিফা, জনি সিনসের মতো পর্নো তারকাদের নাম। সেসব কলেজের মেধাতালিকা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর হতবিহ্বল হয়ে পড়েছে অনেকে। আবার অনেকেই মনে করছেন, সানি লিওন যেহেতু ভারতে ক্যারিয়ার শুরু করেছেন, তাঁকে দেখে অন্য পর্নো তারকারাও ভারতে চুপিচুপি লেখাপড়া করছেন। আসলে ঘটনা কী?

আসল ঘটনা হচ্ছে, এ প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে কোনো যোগাযোগই নেই ওই তারকাদের। যে প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কখনোই যোগাযোগ নেই, সেই প্রতিষ্ঠানের বিভাগীয় পরীক্ষার মেধাতালিকায় তাঁদের নাম! রীতিমতো প্রথম হয়েছেন তাঁরা। তালিকায় আছেন বলিউড তারকা সানি লিওনি, পর্নো তারকা মিয়া খলিফা, বলিউডের আলোচিত গায়িকা নেহা কক্বর। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে সেখানকার স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, এবিপি আনন্দ, হিন্দুস্তান টাইমস, সংবাদ প্রতিদিন, ইন্ডিয়া টাইমস সূত্রে জানা গেছে, প্রথমে দক্ষিণ কলকাতার নামকরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আশুতোষ কলেজে এ ঘটনা ঘটে। সেখানে ইংরেজি বিভাগের মেধা তালিকায় দেখা যায় পর্নো তারকা সানি লিওনের নাম। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে সাড়া পড়ে যায়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায় তালিকাটি। সানিকে নিয়ে যখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচনা, হাসাহাসি তুঙ্গে, সেই সময় এ নিয়ে টুইট করেন তিনি নিজে। টুইটে তিনি লেখেন, ‘আগামী সেমিস্টার থেকে তোমাদের কলেজে পড়তে আসছি, দেখা হবে।’

ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আশুতোষ কলেজের মতো ঘটনা ঘটে বজবজ কলেজ এবং মালদহের মাণিকচক কলেজে। এসব প্রতিষ্ঠানের বিএ (জেনারেল)-এর মেধাতালিকার একেবারে প্রথমেই সানির নাম দেখা যায়। বিভ্রান্তিকর ওই মেধাতালিকা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। কীভাবে এমন হলো, তা খতিয়ে দেখছে তিন কলেজ।

তবে সেখানেই থেমে থাকেনি উদ্ভট এই ফল কেলেঙ্কারি। সম্প্রতি একই কাণ্ড ঘটেছে বারাসাত সরকারি কলেজেও। সেখানকার মেধাতালিকায় দেখা যায় সানি লিওনি, মিয়া খলিফা, জনি সিনসসহ চার পর্নো তারকার নাম। এই মেধাতালিকাটি ভাইরাল হতেই সমালোচনার ঝড় বইতে থাকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। যদিও কলেজ কর্তৃপক্ষ পুরো বিষয়টিকেই অপপ্রচার বলে উড়িয়ে দিয়েছে। তাদের দাবি, কলেজের মেধাতালিকায় এ রকম কারও নাম নেই। একই সময়ে পর্নো তারকাদের পাশাপাশি মেধাতালিকায় দেখা যায় বলিউডের আলোচিত গায়িকা নেহা কক্করের নামও। মালদহের মাণিকচক কলেজের বিএ (জেনারেল)-এর মেধাতালিকার একেবারে প্রথমেই আছে তাঁর নাম।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, একের পর এক কলেজের মেধাতালিকায় সানি লিওনি, মিয়া খালিফা, জনি সিনসের নাম থাকায় বিরক্ত সেখানকার উচ্চশিক্ষা দপ্তর। কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে এর জবাব চেয়েছে তারা। ধারণা করা হচ্ছে, চলমান করোনা পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে একটি চক্র সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠাগুলোর ওয়েবসাইট হ্যাক করে পর্নো তারকাদের নাম যুক্ত করে দিয়েছে। ফলাফলসহ বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম অনলাইনভিত্তিক হওয়ায় হ্যাকারদের কাছে সেখানে হানা দেওয়া সহজ হয়ে গেছে।

Sharing is caring!