ফুলগাজী প্রতিনিধি->>
ফেনীর ফুলগাজীর আমজাদ হাট ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের বাসিন্দা ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম বাবলুকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে মামলার বিবাদী আরিফিন আজাদ বাদল গং। এই মর্মে জানমালের নিরাপত্তা চেয়ে শনিবার দুপুরে ফুলগাজী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন মামলার বাদী নজরুল ইসলাম। বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটাচ্ছেন তিনি ও তার পরিবার।

এর আগে গত ২৩ আগষ্ট রোববার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ধ্রুব জ্যোতী পালের আদালতে ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম বাবলু সহ তার পরিবারকে অস্ত্রের মুখে জিম্মির পর জোরপূর্বক কোটি টাকার জমি লিখে নেয়া ও ঘরের মুল্যবান জিনিসপত্র তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে আরিফিন আজাদ বাদল,গিয়াস উদ্দিন সুমন ও জনপ্রতিনিধি জমিরউদ্দিন সহ অজ্ঞাত ৮ থেকে ১০ দশ জনের বিরুদ্ধে
একটি মামলা দায়ের করেন মামলার বাদী সিএন্ডএফ ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম।

এদিকে সাধারণ ডায়েরী সূত্রে জানা গেছে, গত ১৭জুন প্রকাশ্য দিবালোকে আরিফিন আজাদ বাদল,গিয়াস উদ্দিন সুমন ও জনপ্রতিনিধি জমিরউদ্দিন সহ অজ্ঞাত ৮ থেকে ১০ দশ জনের সংজ্ঞবদ্ধ দল ফুলগাজীর আমজাদ হাটে ব্যবসায়ী নজরুলের ঘরে প্রবেশ করে তার মা সহ পরিবারের সকলকে জিম্মি করে ঘরে থাকা ব্যবসায়ীক ও সম্পত্তির দলিল প্রত্রসহ মূল্যবান জিনিসপত্র জোর পূর্বক ট্রাকে তুলে নিয়ে যায় এবং সেদিনই ঢাকা কেরানীগঞ্জ নিয়ে নজরুলের নিজ মালিকীয় বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার সাড়ে ৬ কাঠার জমিটি লিখে দিতে চাপ দেয়।একপর্যায় ১৮ জুন দুপুরে সাবরেজিষ্ট্রি অফিসে সম্পত্তি লিখে দিতে বাধ্য হন ব্যবসায়ী নজরুল।পরে বিষয়টি কারো কাছে মুখ না খুলতে হুমকি ধামকি দেয়া হয়।

এ ঘটনায় আদালতে মামলা করার পর থেকে মামলার বিবাদীসহ তাদের দলবদ্ধ লোকজন নিয়ে প্রতিনিয়ত ব্যবসায়ী নজরুলের বাড়ীর আশপাশে মহড়া দিচ্ছে এবং ব্যবসায়ী নজরুল কে খোঁজাখুজি করছে বলে সাধারণ ডায়েরীতে উল্লেখ করা হয়। এসময় বাড়ীতে না পেয়ে তিনি সহ তার পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি ধামকি দিয়ে গালিগালাজ করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে সন্ত্রাসীরা।এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যবসায়ী নজরুলসহ তার স্ত্রীর মানহানিকর ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে তারা।পাশাপাশি ইন্টারনেট ভিত্তিক ফোনে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে উল্লেখ করা হয়।এতে ভুক্তভোগী পরিবার ও তাদের জানমাল নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন বলে থানায় সাধারণ ডায়েরীতে উল্লেখ করেন।

এ ব্যাপারে ফুলগাজী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ আলী জানান, নিরাপত্তা চেয়ে নজরুল ইসলাম বাবলু একটি ডায়েরী করেছেন।বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

Sharing is caring!