শহর প্রতিনিধি->>

ফেনীতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চিনির ট্রাকে আগুন দেয়ার ঘটনায় যুবদল নেতা মো. রুবেলকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। শনিবার ভোরে শহরের বিরিঞ্চি এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার রুবেল ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি ও পৌরসভার বিরিঞ্চি এলাকার কমু মিয়ার ছেলে।

র‌্যাব-৭ জানায়, গত ২ নভেম্বর রাতে ৪.১৫ মিনিটে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর লালপোল এলাকায় তিনদিনের অবরোধের শেষ দিনে অজ্ঞাতনামা ১৫ থেকে ২০ জন রাস্তায় গাছ ফেলে ব্যারিকেড দিয়ে যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি করে। তাদের হাতে থাকা লাঠি-সোটা দিয়ে যানবাহন ভাঙচুর ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এ সময় ভাই ভাই ট্রান্সপোর্ট এজেন্সি নামীয় একটি ট্রাক চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী মহাসড়কের বাম পাশে সাইড করে গতি সীমিত করে ঘুরানোর সময় নাশকতা কারীরা ট্রাকটিতে ইট পাটকেল নিক্ষেপ এবং লাঠি-সোটা দিয়ে ট্রাকটি ভাঙচুর করে। পরে নাশকতা কারীরা প্লাস্টিকের বোতলে থাকা পেট্রোল নিক্ষেপ করে ট্রাকে আগুন দিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এবং পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ওই ঘটনায় ভাই ভাই ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির মালিক উজ্জ্বল বৈদ্য (৫৪) বাদী হয়ে ফেনী মডেল থানায় অজ্ঞাতনামা ১৫ থেকে ২০ জনকে আসামি করে একটি নাশকতার মামলা দায়ের করেন।

র‌্যাব-৭ মামলার অজ্ঞাতনামা আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালিয়ে জানতে পারে ওই মামলার পলাতক আসামি মো. রুবেল ফেনী শহরের বিরিঞ্চি এলাকায় অবস্থান করছে। র‌্যাব-৭ এর একটি দল ৪ নভেম্বর ভোরে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে রুবেলকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি স্বীকার করে যে, সে নাশকতায় সরাসরি অংশ গ্রহণ করেছে।

র‌্যাব-৭ সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নুরুল আবছার জানায়, গ্রেপ্তার আসামির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ফেনী মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।