শহর প্রতিনিধি->>
ফেনীতে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে শহরের পৌর হর্কাস মার্কেটের কাঁচাবাজার সরকারী পাইলট হাইস্কুল মাঠে স্থানান্তর করা হয়েছে। ফেনী জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্তে শুক্রবার সকালে পাইলট হাইস্কুল মাঠে স্থানান্তর করা হয় পৌর হকার্স মার্কেট কাঁচাবাজার।

সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাসরীন সুলতানা বলেন, করোনা সংক্রাম রোধে যে কোনো মূল্যে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে। এই সময়ে ব্যবসার চেয়ে বেঁচে থাকার চেষ্টাটাই জরুরি। শুরুতে বাজার ব্যবস্থায় কিছুটা সমস্যা থাকবে। তবে ধীরে ধীরে সেসব সমস্যা কমে যাবে।

পৌর হকার্স মার্কেটের সভাপতি ফারুক হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে বাজারের ব্যবসায়ীদের পাইলট মাঠে বাজার স্থানান্তরের বিষয়টি জানানো হয়। এত স্বল্প সময়ে বড় একটা বাজার অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া কষ্টসাধ্য। তবে প্রশাসনিক সিদ্ধান্তের প্রতি ব্যবসায়ীরা সম্মান জানালেও পাইলট মাঠে অস্থায়ী এ বাজারে চরম অব্যবস্থাপনা রয়েছে। ব্যবসায়ীদের জন্য ছাউনির ব্যবস্থা না থাকায় খোলা আকাশের নিচে তীব্র ধুলাবালি আর গরমে নাকাল বিক্রেতারা।

বাজার ব্যবস্থাপনার বিষয়ে ওই ওয়ার্ডের (২নং ওয়ার্ড) কাউন্সিলর লুৎফুর রহমান খোকন হাজারী বলেন, অস্থায়ী এ বাজারের আবর্জনা পরিষ্কারের জন্য মাঠে সার্বক্ষণিক একটি গাড়ি দাঁড়ানো থাকবে। একজন সুপারভাইজারের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি টিম বর্জ ব্যবস্থাপনার বিষয়টি মনিটরিং করছে।

এদিকে বেলা ১২টার দিকে বাজার পরিদর্শনে আসেন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাসরীন সুলতানা। এসময় ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেন, পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিতে মুরগী ও গরুর মাংস শনিবার থেকে পূর্বের নিয়মে হকার্স মার্কেটে বসবে। পৌর হকার্স মার্কেটের মতো শহরের বড় বাজারস্থ কাঁচাবাজার স্থানান্তরের বিষয়েও আলোচনা চলছে। দ্রুত ওই বাজারটিকেও খোলা জায়গায় স্থানান্তর করা হবে।

Sharing is caring!