আদালত প্রতিবেদক->>

ফেনীতে ফেইসবুক লাইভে এসে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় আসামী ওবায়দুল হক টুটুল ওরফে টুটুল ভুইয়া আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১ টার দিকে ফেনী মডেল থানার ওসি তদন্তে সাজেদুল ইসলামের নেতৃত্বে তাকে আদালতে উপস্থাপন করলে ফেনীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রট ধ্রুব জতী পাল’র আদালতে সে হত্যাকান্ডের লোমহর্ষক বর্ণনা দেন আসামী টুটুল।

এর আগে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে আসামী টুটুলকে আদালতে হাজির করা হয়। পরে আদালত শুরু হলে হত্যাকারী টুটুল ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন এবং পূর্বে থেকে তাদের পারিবারিক কলহ চলছে বলেও জানায়।
এসময় আসামী টুটুল আদালতকে জানায়, সে বুধবার দুপুরে নিজ হাতে দা দিয়ে কুপিয়ে তাহমিনাকে হত্যা করে। হত্যার ভিডিওটি ভাইরাল করতে সবার কাছে সহযোগীতও চান।

গতকাল বুধবার রাতে নিহত তাহমিনার বাবা সাহাব উদ্দিন বাদী হয়ে মেয়ের জামাই টুটুলকে একমাত্র আসামী করে ফেনী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

উল্লেখ্য : বুধবার দুপু‌রে ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রী তাহ‌মিনা আক্তার‌কে কু‌পি‌য়ে নির্মম ভা‌বে হত্যা ক‌রে বারাহীপুর ভূঞা বা‌ড়ির ওবায়দুল হক টুটুল। হত্যার পর জরুরী ৩৩৩ নম্বরে ফোন ক‌রে নিজেই পু‌‌লি‌শে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাকে আটক করে। এসময় হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দা ও ফেসবুকে লাইভ দেয়া মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

Sharing is caring!