নিজস্ব প্রতিনিধি->>

করোনা ভাইরাসে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষদের সহায়তার অংশ হিসেবে ফেনীতে খাদ্যপণ্য বিতরণ কর্মসূচী শুরু হয়েছে। রোববার প্রথম দিনে ফেনী সদর উপজেলার ১২ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে খাদ্যপণ্য বিতরণ করা হচ্ছে।

সকালে শহরের মাষ্টার পাড়ায় সাংসদের নিজ বাড়ির আঙিনায় ত্রাণ বিতরণের কার্যক্রম শুরু হয়। কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান। এসময় পৌর মেয়র আলাউদ্দিন, জেলা আওয়ামী রীগের সভাপতি আকরামুজ্জামানসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। জনপ্রতি প্যাকেট ২০ কেজি চাল, ৫ কেজি আলু, ২ কেজি মসুর ডাল ও এক লিটার তেল থাকছে।

ফেনী-২ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী জানান, ব্যক্তিগত তহবিল থেকে সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে গরীব ও অসহায় পরিবারকে খাদ্যপণ্য দেওয়া হচ্ছে। প্রাথমিক পর্যায়ে রোববার ৫০ হাজার লোককে খাদ্যপণ্য দেওয়া হয়। পরবর্তীতে আরও ৭০ হাজার মানুষকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হবে।

সাংসদ আরো বলেন, ‘ইতোমধ্যে আমি তালিকা করেছি। সেই তালিকা মোতাবেক প্রতিটি ওয়ার্ডে শ্রমজীবী মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্যপণ্য পৌঁছে দেবেন স্বেচ্ছাসেবকরা। আমার আঙিনা হতে ১৮টি ট্রাকে করে প্রতিদিন এসব খাদ্য সামগ্রী সকল ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে পৌঁছে দেয়া হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা তা মনিটর করবে।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শুসেন চন্দ্র শীল বলেন, উপজেলার ১২ ইউনিয়নের ১শ ৮টি ওয়ার্ড রয়েছে। প্রাথমিক ভাবে প্রতিটি ওয়ার্ডে ১শ জনকে সহায়তা দেওয়া হবে। রোববার সকালে সদর উপজেলার শর্শদী ও ফরহাদনগর ইউনিয়ন, বিকালে ফাজিলপুর ও ধর্মপুর ইউনিয়ন, সোমবার সকালে পাঁচগাছিয়া ও মোটবী ইউনিয়ন, বিকালে ছনুয়া ও কাজিরবাগ ইউনিয়ন, মঙ্গলবার কালীদহ, ধলিয়া, লেমুয়া ও বালিগাও ইউনিয়নে বিতরণ করা হবে।

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী বলেন, রোববার প্রথমদিনে পৌরসভায় ৫ হাজার ৪শ প্যাকেট বিতরণ করা হচ্ছে। পৌরসভার ১৮টি ওয়ার্ডের প্রতিটিতে ৩শ প্যাকেট বিতরণ করা হবে।

Sharing is caring!