শহর প্রতিনিধি->>
ফেনী তিনদিন ব্যাপি নাট্যোৎসবের উদ্বোধন হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমীর মঞ্চে নাট্যোৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সুজন চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য সঞ্জীব বড়ুয়া, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের জেলা সভাপতি এডভোকেট জাহিদ হোসেন খসরু, ফেনী থিয়েটার’র প্রধান সম্বনয়কারী কামরুল আলম, পূবালী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের প্রধান সমন্বয়ক সমরজিৎ দাস টুটুল।
উৎসবের প্রথম দিন মঞ্চস্থ হল চট্টগ্রামের অঙ্গন থিয়েটার ইউনিট প্রযোজনায় নাটক ‘শেষ বিকেলের গল্প’। সজনীকান্ত বন্দোপাধ্যায় রচিত রুপান্তর, সংযোজন ও নির্দেশনায় রয়েছে সনজীব বড়ুয়া।

নাটকটিতে এক বয়স্ক দম্পতির ফুরিয়ে যাওয়া সময় ফূটিয়ে তোলা হয়েছে। প্রতিটি মানুষের জীবনে সংকট বহুবিধ। এক জীবনে চাওয়া ও পাওয়ার মধ্যে থেকে যায়, না পাওয়ার গল্প। এ নাটকের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে জীবনের প্রায় শেষ বিকেলের কাছে পৌছে যাওয়া দুজন মানুষ। সংসারের ঝামেলায়, সন্তানদের বড় করতে গিয়ে তাদের জীবনের সোনালী সময় যায় ফুরিয়ে।পরস্পর কাছে পাওয়া, একান্তে মনের কথা বলার অবকাশ পায় না তারা। সেরকম অবকাশের প্রত্যাশায় বেরিয়ে পড়ে এই বয়স্ক দম্পতি,আর সেখানেই জমে উঠে এই নাটক।
উৎসবের দ্বিতীয় দিন রোববার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমীর মঞ্চে পূবালী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের নাটক ‘বাসন’ মঞ্চস্থ হবে। বাংলা নাটকের প্রাণ পুরুষ ড. সেলিম আলদিনের নাটকটিতে পূবালীর এক ঝাঁক নাট্যকর্মী অভিনয় করেছেন।
উৎসবের শেষ দিন সোমবার বিকেলে ফেনীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফেনী থিয়েটাররের পথ নাটক ঘুনপোকা মঞ্চস্থ হবে। পরে শিল্পকলার একডেমীর মঞ্চে চট্টগ্রামের উচ্চারণ নাট্য সম্প্রদায়ের নাটক ‘আর কতদিন’ মঞ্চস্থ হবে।

Sharing is caring!