দাগনভূঞা প্রতিনিধি->>
দাগনভূঞায় প্রতারকের বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতির মামলা করেছে ভূক্তভোগী। দাগনভূঞা পৌর শহরের বেতুয়া গ্রামের প্রতারক জাফর উল্যাহ ভূঞার (৫৫) বিরুদ্ধে বুধবার ফেনীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে মামলা করেন ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তি মো. মিল্লাদ পাটোয়ারী।

মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলার নয়নপুর গ্রামের আবু ছায়েদের ছেলে মো. মিল্লাদ পাটোয়ারীকে গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর মার্কেন্টাইল ব্যাংকের তিন লাখ টাকার চেক নং- সি.এ ২৬৮৭৮৫৭ প্রদান করেন অভিযুক্ত জাফর উল্যাহ ভূঞা। পরবর্তীতে চেকটি বাদী তার নিজ নামীয় ন্যাশানাল ব্যাংক একাউন্টে জমা দিলে ২২ ডিসেম্বর অপর্যাপ্ত তহবিল হিসেবে ডিজঅনার হয়। গত ২৬ ডিসেম্বর বাদী তার আইনজীবির মাধ্যমে লিগ্যাল নোটিশ প্রেরণ করার পরে ও কোন কর্ণপাত না করায় বুধবার ফেনীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে বেতুয়া গ্রামের মজিব উল্যাহর ছেলে জাফর উল্যাহ ভূঞাকে আসামী করে এন.আই এ্যাক্টের ১৩৮ ধারায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- সি আর ১৫/২০। আদালত বাদীর মামলাটি আমলে নিয়ে অভিযুক্ত আসামীর বিরুদ্ধে সমন জারী করে।
বাদীর আইনজীবি কাজী রবিউল হক রবি মামলার বলেন, মামলাটি গ্রহণ করে আদালত আসামীকে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারী করেছে।
মামলার বাদী জানান, আসামী তার নিকট ২৮ লাখ টাকা পাওনা থাকায় উপস্থিত গন্যমান্য ব্যক্তিগনের উপস্থিতিতে শালিস বৈঠকে টাকা ফেরত দেওয়ার মৌখিক অঙ্গিকার করে। সে প্রতিশ্রতি মোতাবেক তিন লাখ টাকার চেক প্রদান করেন। তবে চেকের সেই পরিমান টাকা ব্যাংকে না থাকায় চেকটি ডিজঅনার হয়।

Sharing is caring!