শহর প্রতিনিধি->>
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ছাত্রীকে রাজধানীর কুর্মিটোলায় ধর্ষনের ঘটনায় জড়িত অপরাধীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবীতে সোচ্চার ফেনী জেলা। মঙ্গলবার বিকালে শহরের ট্রাংক রোডের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ‘আমর ফেনীর সন্তান’র ব্যানারে মানববন্ধন, মোমবাতি প্রজ্জলন ও মশাল মিছিল কর্মসূচী পালন করা হয়।
প্রতিবাদ কর্মসূচীর আহ্বায়ক ও ফেনী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আসাদুজ্জামান দারার নেতৃত্বে মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে বিচারের দাবি জানান ফেনী প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি বখতেয়ার ইসলাম মুন্না, প্রবীণ সাংস্কৃতিক সংগঠক শান্তি চৌধুরী, নাট্য ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দিন সাইমুম, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ফেনীর সাধারণ সম্পাদক সমর দেব নাথ, ফেনী রিপোর্টাস ইউনিটির সাবেক সভাপতি আরিফুল আমিন রিজভী, মানবজমিন ও বিডি নিউজ প্রতিনিধি ও সাংস্কৃতিক সংগঠক নাজমুল হক শামীম, ইয়ুথ জানালিষ্ট ফোরাম ফেনীর সভাপতি শাহজালাল ভূঞা, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সহায়’র সভাপতি মঞ্জিল্লা আক্তার মিমি, সংগঠক নাসিম আনোয়ার জাকি, ক্রীড়া সংগঠক শরিফুল ইসলাম অপু, আরাফাত, উৎপল সুজন, আমের মক্কী, সৈয়দ আশ্রাফুল হক, এখলাস উদ্দিন খোন্দকার সহ বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ।

এসময় ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’, ‘বাংলার মাটিতে ধর্ষকদের জায়গা নেই’, ‘ধর্ষনের একমাত্র বিচার ফাঁসি’, ‘ফাঁসি ছাড়া কোন বিকল্প নেই’, ‘একাত্তরে হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার’ বলে শ্লোগান দিয়ে ধর্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন উপস্থিত সকলে।
সন্ধ্যায় মশাল ও মোমবাতি হাতে উপস্থিত সকালে দোয়েল চত্ত্বর, খেজুর চত্ত্বর, প্রেস ক্লাব ও শহীদ শহীদুল্লা কায়সার সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় শহীদ মিনারে এসে বিক্ষেভে মিলিত হয়।
প্রতিবাদ কর্মসূচীর আহ্বায়ক আসাদুজ্জামান দারা বলেন, সাম্প্রতিককালে দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্ষনের ঘটনা বেড়ে চলেছে। তারই ধারাবাহিকতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী আমাদের ছোট বোন জঘন্যতম নির্যাতনের শিকার হয়েছে। কিন্তু এ ঘটনায় যিনি বা যারা জড়িত তারা এখনও আইনের আওতায় আনতে পারেনি সরকান। আমাদের এ প্রতিবাদ সমাবেশের মাধ্যমে আমরা ধর্ষককে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে এবং ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড কার্যকর করার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছি।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ফেনীর সাধারণ সম্পাদক সমর দেবনাথ বলেন, অতীতের ধর্ষণের মামলাগুলোর দ্রুততার সাথে বিচার না করায় দিন দিন অপরাধের মাত্রা বেড়েই চলছে। মামলাগুলোর দ্রুত নিষ্পত্তির পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষনের ঘটনায় জড়িত অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি।

দৈনিক মানবজমিন ও বিডিনিউজ’র ফেনী প্রতিনিধি সাংস্কৃতিক সংগঠক নাজমুল হক শামীম বলেন, বাংলার মাটিতে আর কোন ধর্ষক যেন বুক ফুলিয়ে চলতে না পারে, আর কোন নারী যেন নিরাপত্তাহীনতায় না ভুগে সেজন্য সরকারকে জোরালো পদক্ষেপ নিতে হবে। যারা এরকম নৃশংস ঘটনায় জড়িত তাদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা এখন সময়ের দাবি।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সহায়’র সভাপতি নারী নেত্রী মনজিলা আক্তার মিমি বলেন, ধর্ষণের মিছিল দেখতে দেখতে আমরা বিধ্বস্ত। আমরা চাই যেন আর কোন ধর্ষণের ঘটনা না ঘটুক। আমরা নারীরা যেন নিরাপদে পথ চলতে পারি, তাদের নিরাপত্তা জোরদার করা হোক।

এর আগে সোমবার শহরের শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে সচেতন শিক্ষার্থীবৃন্দ ও আমরা ফেনীবাসীর ব্যানারে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। একইদিন বিকালে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে ‘সচেতন ছাত্র সমাজ’ নামের একটি সংগঠন।

Sharing is caring!