শহর প্রতিনিধি->>

ফেনীতে স্টার লাইন স্প্রাউট ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে জমজমাট পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকালে স্কুল চত্বরে আয়োজিত পিঠা উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মো: ওয়াহিদুজজামান।
ফেনী ন্যাশনাল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সন্তোষ রঞ্জন নাথের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসকের সহধর্মীনি সেলিনা আক্তার ববি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো: গোলাম জাাকারিয়া, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরীন সুলতানা, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কাজী সলিম উল্যাহ, ফেনী পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী, সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাজনীন আক্তার প্রমুখ।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন স্টার লাইন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক জাফর উদ্দিন, পরিচালক মাহমুদুল হক চৌধুরী মুনির ও মাঈন উদ্দিন।

পিঠা উৎসবে পিঠার স্টলগুলোতে বাহারি পিঠার সমাহার নিয়ে হাজির ছিল শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা। পিঠার নামের তালিকা ছিলো ভাপা, মুকশুলি, মসুর পাকন, চিকেন পুলি, দুধ পুলি, নারিকেল পুলি, গোলাপ ফুল পিঠা, আলুর পাকন পিঠা, বিবিআনা পিঠা, নারিকেল বিস্কুট পিঠা, বো টাই পিঠা, তেল পিঠা, ডিম সুন্দরী পাটিসাপটা, পাটিসাপটা, আনারকলি, দুধসাগর, চিতই পিঠাসহ বাহারি পিঠা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, দেশ ও জাতির সামগ্রিক উন্নয়নের লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের মাঝে নৈতিক ও মানবিক গুণাবলির বিকাশ ঘটানো খুবই জরুরি। তবে দেশের বিদ্যমান শিক্ষা ব্যবস্থায় পাসের হার বাড়লেও শিক্ষার্থীরা সঠিকভাবে বিকশিত হচ্ছে না।

তিনি বলেন, এ অবস্থা থেকে উত্তরণে ও শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশে পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত করা জরুরী। শিক্ষার্থীদের জ্ঞানী, নৈতিক ও চরিত্রবান মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পরিবারকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

পিঠা উৎসবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন ছিলো চোখে পড়ার মতো।

Sharing is caring!