নিজস্ব প্রতিনিধি->>
ফেনীতে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার প্রথম দিন অনুপস্থিত ছিলেন ৮৬৪ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে অনুপস্থিত ৪৭৪ জন ও ইবতেদায়িতে ৩৯০ জন। প্রথম দিন প্রাথমিক সমাপনীতে পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯৮ দশমিক ০৪ ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার উপস্থিতির হার ৯৫ দশমিক ০১।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে জেলায় অনুপস্থিত ছিলো ৪৭৪ জন। এর মধ্যে ছাত্র ২৮১ জন, ছাত্রী ১৯৩ জন। ফেনী সদর উপজেলায় ২২২ জন, সোনাগাজীতে ৭৩ জন, দাগনভূঞাঁয় ৭১ জন, ছাগলনাইয়ায় ৬১ জন, ফুলগাজীতে ২৪ জন ও পরশুরামে ২৩ জন অনুপস্থিত ছিলেন।
ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনীতে প্রথম দিন ইংরেজী বিষয়ে অনুপস্থিত ছিলেন ৩৯০ জন। এর মধ্যে ছাত্র ২৫৩ জন, ছাত্রী ১৩৪ জন।
ফেনী সদর উপজেলায় ৯৭ জন, সোনাগাজীতে ৯৮ জন, দাগনভূঞাঁয় ১১৯ জন, ছাগলনাইয়ায় ৩১ জন, পরশুরামে ২৩ জন, ফুলগাজীতে ২২ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন।
ফেনীতে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি মিলিয়ে পরীক্ষার্থী ৩১ হাজার ৯৫০ জন। এর মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে ২৪ হাজার ১৪০ ও ইবতেদায়িতে ৭ হাজার ৮১০ জন অংশ নেওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে ৮৬৪ পরীক্ষার্থীই অনুপস্থিত।
জেলার মধ্যে ফেনী সদর উপজেলার ২২টি কেন্দ্র, সোনাগাজী উপজেলায় ১১টি, দাগনভূঞাঁ উপজেলার নয়টি, ছাগলনাইয়া উপজেলায় নয়টি, ফুলগাজী উপজেলায় ছয়টি ও পরশুরাম উপজেলায় পাঁচটি কেন্দ্র রয়েছে। এছাড়া ৫৫টি কেন্দ্র ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মধ্যে ফেনী সদর উপজেলায় ১৫টি, সোনাগাজী উপজেলায় ১১টি, দাগনভূঞাঁ উপজেলায় নয়টি, ছাগলনাইয়া উপজেলায় নয়টি, ফুলগাজী উপজেলায় ছয়টি ও পরশুরাম উপজেলায় তিনটি কেন্দ্র রয়েছে।
ফেনী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নুরুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হচ্ছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরীক্ষাকেন্দ্রগুলো মনিটরিং করা হচ্ছে।

Sharing is caring!