নিজস্ব প্রতিনিধি->>
জয়নাল হাজারীর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মনোনিত করে চিঠিতে সাক্ষর করলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ২৮ অক্টোবর সোমবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্যাডে তার সাক্ষরিত চিঠিতে জয়নাল হাজারীর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মনোনিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চিঠিতে তিনি লিখেন- ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা এমপি গত ২২ ও ২৩ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২৩ তম জাতীয় কাউন্সিল কর্তৃক প্রদত্ত ক্ষমতাবলে আপনাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন।
আশা করি আপনার শ্রম, মেধা ও প্রজ্ঞা দিয়ে সিংগঠনের নতৃুন গতিবেক সঞ্চারিত করতে সহায়তা করবেন। আপনার সর্বাঙ্গীন মঙ্গল কামনা করছি।
ধন্যবাদান্তে, ওয়াবয়দুল কাদের এমপি, সাধারণ সম্পাদক, আওয়ামী লীগ।’

এর আগে গত ২৬ অক্টোর শনিবার ফেনী সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে জয়নাল হাজারীর উপদেষ্ঠা বিষয়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, সুনিদির্ষ্টভাবে কিছু বলতে পারছি না, সভাপতি নির্দেশ দিলে সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর সম্বলিত চিঠি যাওয়ার কথা। কিন্তু আমি কোনো চিঠি দেইনি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম, ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী, জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজ্জামান, পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরন্নবী, ফেনী ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম, অতিরিক্ত জেলা প্রাশাসক (সার্বিক) সুমনী আক্তার, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান বিকম, ফেনী পৌর সভার মেয়র হাজি আলাউদ্দিন, সড়ক ও জনপদ বিভাগের কুমিল্লা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী একেএম মনির হোসেন পাঠান, প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী।

এর আগে গত ২০ অক্টোবর রোববার রাতে শহরের একটি রেস্ট্ররেন্টে মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী বলেন, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ জয়নাল হাজারী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা পরিষদে নেই।
নিজাম হাজারী বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা তাকে উপদেষ্টা করেছেন, এমন কোনো বিষয় প্রতীয়মান নয়। এটি তার নিজস্ব বানোয়াট কল্পকাহিনী। জয়নাল হাজারী বরাবরের মতো এ বিষয় নিয়েও মিথ্যাচার করছেন।
এসময় ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বিকম বলেন, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের কোনো কমিটিতে হাজারীর নাম নেই, তিনি দলের সম্মেলনের কাউন্সিলরও নন।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আক্রামুজ্জামান, সহ-সভাপতি পিপি হাফেজ আহম্মদ, সহ-সভাপতি প্রিয় রঞ্জন দত্ত সহ-সভাপতি ইফতেখারুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মাস্টার আলী হায়দার সহ জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা।

প্রসঙ্গত; জয়নাল হাজারী ১৯৮৪ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

এছাড়াও ফেনী-২ (সদর) আসন থেকে ১৯৮৬, ১৯৯১ এবং ১৯৯৬ সালে টানা তিনবার সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি।

Sharing is caring!